,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

সিলেট ছাত্রদলের ভাগ্যে কি আছে ?

লাইক এবং শেয়ার করুন

সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের ৮ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করে ২০১৪ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর। এক মাসের মধ্যে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার কথা ছিল ওই আংশিক কমিটিকে। কিন্তু সরকার বিরোধী আন্দোলন ও অভ্যন্তরীণ বিরোধ, সংঘাত, সংঘর্ষে প্রায় ২ বছর কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে পারেনি দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতারা। তবে সাধারণ নেতা-কর্মীদের প্রতীক্ষা আর ধর্য্যে বাদ ভেঙ্গে গেছে। ছাত্রদলের আন্দোলন সংগ্রামের সুপরিচিত নেতা কর্মীরা তাদের ফেইসবুক পোষ্টে ক্ষোভ জানিয়েছেন। এই নিয়ে বিগত কয়েক দিন যাবত সিলেট জোড়ে চলছে আলোচনা। তবে এই কমিটির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর।
সেই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে সিলেট ছাত্রদল আরো সু-সংগঠিত থাকত। নতুন নেতৃত্ব তৈরি হত। দীর্ঘ ১৬ বছরে কমিটি হয়ার কথা ছিল ৮ বার সেই জায়গা হয়েছে ১ বার। যদি কমিটি দলের সংবিধান অনুসারে হতে তা হলে ৮ বার সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটি আসত। বেরিয়ে আসত নতুন নেতৃত্বে। সিলেট যুবদল নেতৃত্বে শূণ্যতা থাকত না।সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রকিব চৌধুরী বলেছেন, পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে একটু বিলম্ব হযেছে দেশের সার্বিক পরিস্থিতির কারণে। তবে নতুন কমিটি প্রসঙ্গে বলেন মেয়াদ শেষ হলে নতুন কমিটি আসার ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখা উচিত এ ব্যাপারে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদ সিদ্ধান্ত নেবে।

এই বিষয়ে আলাপকালে সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক সদস্য লিটন আহমদ জানান, বর্তমান সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের কমিটি সরকার বিরোধী আন্দোলনে যে ভাবে ব্যর্থ ঠিক তেমনি সাংগঠনিক ভাবেও ব্যর্থ। আশা প্রকাশ করছি আগামী মাসের মধ্যে ত্যাগী ও পরিশ্রমী তরুণ নেতা কর্মীদের নেতৃত্বে নতুন কমিটি আসবে।

সিলেট জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান নেছার বলেন, কমিটির মেয়দ আর তিন সপ্তাহ আছে। নতুন বা পুর্নাঙ্গ এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত আসবে। নতুন বা পুর্ণাঙ্গ যে কমিটি আসুক সবার সম্বয়নে না আসলে তা হেতে বিপরিত হবে বলে আংশকা প্রকাশ করছি।
সিলেট ছাত্রদল নেতা সারওয়ার রেজা বলেন, সিলেট ছাত্রদলের ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত চুড়ান্ত। তবে দলীয় সংবিধান অনুসারের দলের ধারাবাহিক অব্যাহত রাখলে নতুন নেতৃত্বে বেরিয়ে আসবে। দল আরো সু-সংগঠিত হবে।

ছাত্রদল নেতা দিলওয়ার হোসেন (হাজী দিনার) বলেন, দীর্ঘ দিন যাবত শুনে আসছি পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনা কথা। রমজানের পর ঈদের পর চলে আসবে এখন শুনছি দলের চেয়ারপার্সন পবিত্র হজ^ পালনে যাবেন আগামী ৩ সেপ্টেম্বর, যাওয়ার পূর্বে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনা হবে। যাই হউক আমরা চাই দলের সংবিধান অনুসারে দলের স্বার্থে হউক।

জেলা ছাত্রদল নেতা আব্দুল কাইয়ুম বলেন, দলের নীতি নির্ধারক যারা আছে তারা সিদ্ধান্ত নিবেন সিলেট ছাত্রদলের ভাগ্যর ব্যাপারে। তবে আমি মনে করি সিলেট ছাত্রদল নিয়ে স্থানীয় বিএনপি সহ সবার আলাপ আলোচনা কমিটি ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখা উচিত।তবে অনেকেই বিভিন্ন ভাবে নতুন কমিটি শীঘ্রই আসছে বলে আবাস দিতে চেষ্ঠা করছেন। নতুন কমিটিতে স্থান পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন। কমিটিতে স্থান পেতে ইতমধ্যে দৌড় ঝাপ শুরু করেছেন সিলেট ছাত্রদলের এক ঝাঁক নেতা কর্মী।

সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিল মুর্শেদ, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক লোকমান আহমদ, সিলেট জেলা ছত্রদলের সাবেক সহ প্রচার সম্পাদক আজিজুর হোসেন আজিজ, দেওয়ান আরাফাত চৌধুরী জাকির, নজরুল ইসলাম, কাজী মেরাজ, আব্দুর রকিব চৌধুরী, মিজানুর রহমান নেছার, নাজিম উদ্দিন পন্না, লিটন আহমদ, মকসুদ আহমদ, এমদাদুল হক স্বপন, সারওয়ার রেজা, মির্জা সম্রাট, আফসর খান, আলতাফুর রহমান সুমন, এখলাছুর রহমান মুন্না, মুমিনুল হক রাহি, লিটন কুমার দাস নন্টু, হানুর ইসলাম ইমন, ইমাম উদ্দিন ইমাম, আব্দুল হাসিম জাকারিয়া, কামরান হোসেন হেলাল, খন্দকার ফয়েজ আহমদ,সজিবুর রহমান রুবেল,আমিনুল ইসলাম সাজু, ইমাম উদ্দিন, এম এ মতিন, রজব আহমদ, উমেদুর রহমান উমেদ, সাহেদ আহমদ, আহমেদ জিলু, খালেদ আহমদ মিলু, গোলাম মোহাম্মদ আজম, মুহিবুর রহমান শিপলু, সিহাব খান, অলি চৌধুরী, রুনু আহমদ, কামরুল হাসান, আমিনুল ইসলাম মামুন, দিলওয়ার হোসেন (হাজী দিনার), আব্দুল হাছিব, সেলিম মিয়া, আশারাফ উদ্দিন রুবেল, দিলওয়ার হোসেন নাদিম, মুকিত তুহিন, জাহাঙ্গীর আলম বাবুল, তোয়ায়েল আহমদ, মোস্তকুর রহমান রুমন, শাহ আকাব আহমদ পলাশ, জাবের হোসেন, মকসুদুল করিম ইমন, আবুল হাসনাত শিমু, আব্দুল করিম জোনাক, আব্দুল কাইয়ুম, কাওসার মাহমুদ সুমন, মোবারক হোসেন তুহিন, নজরুল ইসলাম, সুহেল ইবনে রাজা, আনোয়ার হোসন রাজু, আলী আকবর রাজন, ডা. শাকিল আহমদ, ওয়াবাদুর রহমান ফাহমি, মাসরু রাসেল, সোহেল রানা, এনামুল হাসান, দিলদার হোসেন শামীম, আব্দুল আহাদ সুমন, বদরুল আজাদ রানা, আশিকুজ্জামান আশিক, রাইসুল ইসলাম সনি, জহিরুল ইসলাম আলাল, মাহবুবুল আলম সৌরভ, আফজল হোসেন, মুক্তার আহমদ মুক্তার, জইন ইউ আহমেদ জনি, আবু বক্কর সিদ্দিকী বাবু, আব্দুল হামিদ চৌধুরী, রুমান আহমদ রাজু, নজমুল ইসলাম, আহমেদ শাহীন, সালেহ আহমদ তাপাদার, আকরাম হোসেন।

এব্যাপারে কেন্দ্রীয় সংসদ ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সত্তার পাটওয়ারী জানান. দলের বৃহত্তর স্বার্থে সাংবিধানিক দিক মাতায় রেখে সিলেট ছাত্রদলকে সু-সংগঠিত করতে শীঘ্রই সিলেট ছাত্রদলের ব্যাপারে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল আলাপ আলোচার বৃত্তিতে সিদ্ধান্ত জানাবে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ