,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

তাহিরপুরে শিক্ষক কর্তৃক শিক্ষার্থীর অশ্লীল ভিডিও চিত্র রেকর্ডের ঘটনায় তোলপাড়

লাইক এবং শেয়ার করুন

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি # সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার টেকেরঘাট স্কুল এন্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক কর্তৃক এক শিক্ষার্থীর অশ্লীল ভিডিও গোপনে রেকর্ড করে ব্ল্যাকমেইলের চেষ্টার ঘটনায় ব্যাপক তোলাপাড় শুরু হয়েছে। এঘটনার প্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। লম্পট সহকারী শিক্ষকের নাম-আব্দুল লতিফ (৩৭)। তিনি নেত্রকোনা জেলার কমলাকান্দা উপজেলার বালুকান্দা গ্রামের মমতাজ আলীর ছেলে।

ব্ল্যাকমেইলের শিকার হওয়া শিক্ষার্থীর নাম তিথি মনি (১৩)। সে উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের টেকেরঘাট গ্রামের কৃষক আবুল কাসেমের মেয়ে ও টেকেরঘাট স্কুল এন্ড কলেজের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী। স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে জানাযায়,গত বৃহস্পতিবার সকালে টেকেরঘাট স্কুল এন্ড কলেজ সংলগ্ন স্থানে অবস্থিত নিজ বসতবাড়িতে শিক্ষার্থী তিথি মনি গোসল করার সময় লম্পট সহকারী শিক্ষক আব্দুল লতিফ তার মোবাইল দিয়ে গোসলের অশ্লীল ভিডিও চিত্র রেকর্ড করে তাকে ব্ল্যাকমেইলের চেষ্টা করে। পরে এঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হওয়ার পর ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে লম্পট শিক্ষক আব্দুল লতিফের বিচার দাবী করে অধ্যক্ষের নিকট একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

এব্যাপারে লাকমা গ্রামের মনির হোসেন,নজরুল ইসলাম,শাহীন মিয়া ও টেকেরঘাট গ্রামের হায়দার আলীসহ আরো অনেকেই বলেন,এই ঘটনার প্রায় ৪ মাসে আগে লম্পট শিক্ষক আব্দুল লতিফ তারই স্কুলের ৯ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী হীরা আক্তারকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করেন। এবং বিয়ের ৭দিনের মাথায় স্ত্রীকে রেখে অন্য এক শিক্ষার্থীকে রাস্তায় প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে উত্যক্ত করলে স্থানীয় যুবকরা তাকে আটক করলে এলাকাবাসীর সহযোগীতায় রক্ষা পায়। বর্তমানে ব্ল্যাকমেইলের শিকার হওয়া শিক্ষার্থীর বিষয়টি নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করার জন্য লম্পট শিক্ষক আব্দুল লতিফ ও তার বায়রা ভাই সীমান্ত সন্ত্রাসী আজাদ মিয়া তার বাহিনী নিয়ে হুমকি দিয়েছে।

এমতাবস্থায় চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে শিক্ষার্থী তিথি মনি ও তার পরিবার। এব্যাপারে শিক্ষার্থী তিথি মনির বাবা আবুল কাসেম বলেন,আমার মেয়ের ইজ্জত নষ্ট করার জন্য লম্পট শিক্ষক লতিফের বিরুদ্ধে অধ্যক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি ন্যায় বিচার পাওয়ার জন্য। এঘটনার সত্যতা স্বীকার করে টেকেরঘাট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ খায়রুল আলম বলেন,শিক্ষার্থীর ভিডিও চিত্র মোবাইলে রেকর্ড করার ঘটনার প্রেক্ষিতে সহকারী শিক্ষক আব্দুল লতিফের বিরুদ্ধে কমিটির পক্ষ থেকে ৩সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করাসহ আমার উপরস্থ কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবগত করেছি এবং ৭দিনের মধ্যে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এব্যাপারে তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর বলেন,লিখিত অভিযোগ পেলে এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ