,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

ভালুকায় গ্রাম্য সালিশে গৃহবধূকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

লাইক এবং শেয়ার করুন

ভালুকা প্রতিনিধি: বাড়িতে পীরের আসর বসানোয় বাঁধা দেয়ার জের ধরে গ্রাম্য সালিশ ডেকে  আসমা আক্তার (৪৫) নামে এক গৃহবধুকে স্বামীর আবুল হাসেম ও সালিশের লোকজন পিটিয়ে আহত করে ঘরে আটকিয়ে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিন সন্তানের জননী ওই গৃহবধূকে ভালুকা ৫০শয্যা  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (১০অক্টোবর) ভালুকা উপজেলার ডাকাতিয়া ইউনিয়নের কালীরচালা গ্রামের। স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, গৃহবধূ আসমা আক্তার তার স্বামীর বাড়িতে স্থানীয় পীর আবুল কালামের আসর (ওরশ) বসানোয় বাঁধা দেয়ায় ঘটনার দিন তার স্বামী আবুল হাসেম ও তার আত্মীয়দের নিয়ে তার বাড়িতে সালিশ বসান। সালিশের এক পর্যায়ে আবুল হাসেম ক্ষিপ্ত হয়ে আসমাকে বেদম মারধর করেন এ সময় তাকে সহযোগিতা করেন ।

আহত ওই নারীকে মারধর করে ঘরে আটকে রাখা হয়।পরে ওই ঘটনার খবর পেয়ে কয়েকজন সাংবাদিক কালীরচালা গ্রামে আবুল হাসেমের বাড়িতে উপস্থিত হলে আসমা আক্তারের মেয়ে মুক্তা অন্যান্য মহিলাদের সহায়তায় তার মাকে উদ্ধার করে ভালুকা হাসপাতালে নিয়ে আসে। আহত নারীর মেয়ে মুক্তা বলেন,আমার ছোটভাই আসলাম,আমাকে ও মাকে রশি দিয়া বেঁধে বেদম পিটিয়ে আহত করে।আসমা আক্তার জানান, তার স্বামী মাদকাসক্ত। বাড়িতে বসে গানবাজনা ও নেশা করে এবং তার পীরের সাথে আমাকে খারাপ স¤পর্ক করতে বলে। তাছাড়া, মাহমুদুল হাসান তার আপন মামাতো ভাই। বয়সের দিক দিয়ে সে তার অনেক ছোট।

অন্যায় কাজে বাধা দেওয়ায় মাহমুদুলকে জড়িয়ে তার নামে আজে বাজে কথা কথা তুলছে তার স্বামী। তাছাড়া, ঋণের টাকা দিয়ে বিদেশ গিয়ে ছিলেন তার স্বামী এবং বিদেশ গিয়ে অসুস্থ্য হয়ে যাওয়ায় ঋণের টাকা পরিশোধ না করেই তিনি দেশে ফিরে আসেন। পরে ভাইয়ের টাকায় তার (আসমা) নামে কিনে দেওয়া জমির কাগজপত্র না দেওয়ায় তার প্রতি ক্ষিপ্ত হন স্বামী আবুল হাসেম। কৌশলে তার জমির কাগজপত্র হাতিয়ে নেওয়ার জন্যই তিনি তার পক্ষের সকল লোক ডেকে সোমবার সালিস বসিয়ে ছিলেন। পরকীয়ার অভিযোগটি অস্বীকার করে আসমা এই ঘটনায় মামলা করবেন বলেও জানান।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ