,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আগৈলঝাড়ায় প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের মধ্যে আনুষ্ঠানিক শিক্ষাবৃত্তি প্রদান শুরু

লাইক এবং শেয়ার করুন

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) # বরিশালের আগৈলঝাড়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে আনূষ্ঠানিকভাবে শিক্ষা বৃত্তি প্রদান শুরু। সরকারী ব্যবস্থাপনার কারণে একই ভ্যেনুতে ১২টি বিদ্যালয়ের শিশু ও অভিভাবকদের ভীড়ে শিক্ষাবৃত্তি নিতে এসে এক মহিলা অভিভাবক অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। প্রত্যক্ষদর্শী ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শতভাগ শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপবৃত্তি প্রদানের অংশ হিসেবে গতকাল বুধবার সকাল থেকে উপজেলার সদর মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে উপজেলার ৯৬টি স্কুলের মধ্যে ১২টি স্কুলের শিক্ষার্থীদের বৃত্তির ২২লাখ ৩৪ হাজার ৫০ টাকা বিতরণ শুরু হয়।

গত ১০ জুলাই সরকার আগৈলঝাড়ার ৯৬টি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অনুকূলে ১ কোটি ৫০ লাখ ৭৮ হাজার ৩শ’ ৫০ টাকা বরাদ্দ প্রদান করেন। বরাদ্দকৃত ওই টাকা ২০ জুলাইয়ের মধ্যে বিতরণের নির্দেশ প্রদান করা হয়। সরকারী নিয়মানুযায়ী সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের চার কি.মি-র মধ্যে অবস্থিত স্কুলগুলোকে একটি ভেন্যুতে বসে টাকা প্রদান ও অভিভাবকদের হাতে সরাসরি টাকা দেয়ার বাধ্যবাধকতার কারণে সকাল থেকেই শিক্ষাবৃত্তির টাকা নিতে আসা ওই ১২টি স্কুলের ২১১৯ জন শিশু শিক্ষার্থী ও তাদের সাথে আসা ১৪৬২ জন অভিভাবকসহ মোট ৩৫৮১ জন সদর স্কুল মাঠে জড়ো হয়। সকালে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলাম তালুকদার আনুষ্ঠানিকভাবে বৃত্তি প্রদান উদ্বোধন করেন।

এসময় সোনালী ব্যাংক ম্যানেজার আমিনুল ইসলামসহ সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সকাল থেকে বিকেল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত ১২টি স্কুলের মধ্যে ৭টি স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা বৃত্তির টাকা বিতরণ করার সময় উপজেলার সর্বত্র গুজব ছড়িয়ে পরে এক অভিভাবকের মৃত্যু হয়েছে, অসুস্থ হয়েছেন আরও ৫ জন।

মূহুর্তের মধ্যে চতুর্দিকে এমন খবর ছড়িয়ে পরলে শিক্ষা অফিসার ও সংবাদকর্মীরা সদর স্কুলে ছুটে যান। সেখানে গিয়ে বাকাল হাই সংলগ্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মহিলা অভিভাবক কমলা রানীর অসুস্থতার খবর নিশ্চিত করা হয়। উপস্থিত লোকজন তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় দু:স্থ ও মানবতার হাসপাতালে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সিরাজুল হক তালুকদার তাকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান। উ™ভূত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে তাৎক্ষণিক শিক্ষা উপবৃত্তি প্রদান বন্ধ করে দেয়া হয়।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলাম জানান, অসুস্থ হওয়া ওই অভিভাবক বর্তমানে সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন। তাকে সকল চেকআপ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, মাত্র ১০ দিনে এত শিক্ষার্থীর অভিভাবকদের হাতে সরাসরি টাকা পৌঁছে দেয়া খুবই কষ্টকর। এর মধ্যে ছুটির দিনেও তাদের টাকা দিতে হবে। পরবর্তীতে এক একটি স্কুলে গিয়ে কর্মকর্তারা শিক্ষার্থীদের টাকা প্রদান করবেন বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ