,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদমুক্ত সমাজ গঠনে বিশ্ব নবীর (দ.) রাজনৈতিক জীবনাদর্শ অনুসরণের বিকল্প নেই – ইসলামী ফ্রন্ট

লাইক এবং শেয়ার করুন

মুহাম্মদ ফয়সাল শরীফ, চট্টগ্রাম # জঙ্গিবাদমুক্ত সমাজ গঠনে সাংগঠনিক সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, ইসলামী মহিলা ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম জেলার উদ্যোগে ২৩ জুলাই শনিবার বিকালে নগরীর মুরাদপুরস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় । এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী ফ্রন্ট চেয়ারম্যান আল্লামা এম এ মান্নান ।

প্রধান অতিথি বলেন, শিক্ষিত তরুণদের এক বিরাট অংশ আজ বেকারত্বে ধুঁকছে । সর্বনাশা মাদকে ডুবে আছে যুবক যুবতীরা । এর থেকে উত্তরণে ইসলামের কালজয়ী আদর্শ যুব সমাজসহ সর্বস্তরের মানুষের কাছে তুলে ধরতে হবে । সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদমুক্ত সমাজ গঠনে বিশ্ব নবীর (দ.) রাজনৈতিক জীবনাদর্শ অনুসরণের বিকল্প নেই । সদ্য ওমান সফর শেষে প্রত্যাবর্তনকারী বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব মাওলানা এম এ মতিনকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয় । অনুষ্ঠানে এম এ মতিন বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ আজ সারা বিশ্বের জন্য মারাত্মক হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে । এর মূল কারণ হলো তরুণ ও যুব সমাজের মাঝে ইসলামের প্রকৃত শিক্ষার অভাব, দুর্বল ঈমান ও তাকওয়ার অভাব, চারিত্রিক অধঃপতন । আপসকামী অবক্ষয়মুখী নেতৃত্বের কারণে সম্ভাবনাময়ী যুব সমাজ আজ কোনো দিকনির্দেশনা পাচ্ছে না । অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটির সদস্য সচিব এডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার । তিনি বলেন, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজনীয়তা সরকার স্বীকার না করায় দেশের বড় ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে । জঙ্গিবাদ ইস্যুতে দলাদলি বা দোষারোপের রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসতে তিনি সরকার ও বিরোধী দলের নেতৃত্বের বোধোদয় কামনা করেন ।

সংগঠক মাস্টার মুহাম্মদ আবুল হোসেন ও মুহাম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর উত্তর সভাপতি আলহাজ্ব নাঈম উল ইসলাম পুতুল । শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মহানগর উত্তর ইসলামী ফ্রন্ট সাধারণ সম্পাদক ও অনুষ্ঠান প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক নাছির উদ্দিন মাহমুদ । অনুষ্ঠানে অতিথি ও আলোচক হিসেবে কেন্দ্রীয় ও জেলা নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কাজী সোলাইমান চৌধুরী, মাওলানা নূর মুহাম্মদ আলকাদেরী, অধ্যাপক আবু তালেব বেলাল, মুহাম্মদ জাকির হোসেন, সৈয়দ মুহাম্মদ হোসেন, মুহাম্মদ আবদুর রহিম, ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ নূর হোসেন, অধ্যক্ষ মাওলানা তৈয়ব আলী, মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম জিহাদী, পীরজাদা মাওলানা গোলামুর রহমান আশরফ শাহ, মুহাম্মদ আলী হোসেন, ওমান প্রবাসী মাওলানা সাইফুদ্দিন, মুহাম্মদ আবদুল মান্নান, মুহাম্মদ আবু বক্কর ছিদ্দিকী, মাওলানা শিব্বির আহমদ ওসমানী, মাওলানা আবু নাছের তৈয়ব আলী, মুহাম্মদ ফজলুল করিম তালুকদার, মাওলানা মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, মুহাম্মদ মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন মাহমুদ,

মুহাম্মদ আকতার হোসেন চৌধুরী, মুহাম্মদ শফিউল আলম শফি, মুহাম্মদ আবদুল করিম সেলিম, মুহাম্মদ নবী হোসেন, মুহাম্মদ আবদুর রহিম, সৈয়দ মুহাম্মদ আবু আজম, সৈয়দ মুহাম্মদ এনামুল হক, মাওলানা শাহজাহান, মাওলানা আবুল হাসান মুহাম্মদ ওমায়ের রজভী, মহানগর উত্তর মহিলা ফ্রন্টের সভানেত্রী কুসুম আক্তার ভান্ডারী, ভাইস চেয়ারম্যান আকতার হোসেন চৌধুরী, আবুল মনসুর, মুহাম্মদ আলমগীর, ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মদ নুুরুল হক চিশতী, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সাদেকুর রহমান খান, হোসাইন মুহাম্মদ এরশাদ, দিদারুল ইসলাম কাদেরী, মুহাম্মদ আবদুল কাদের রুবেল, মুহাম্মদ রিয়াজ হোসেন, সরওয়ার উদ্দিন চৌধুরী, মহিউদ্দিন চৌধুরী, মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম হিরু, মুহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম চৌধুরী, মুহাম্মদ রেজাউল মোস্তফা কায়সার, মুহাম্মদ মিজানুর রহমান প্রমুখ । এছাড়া সংগঠনের চট্টগ্রাম জেলার অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন ওলামা মাশায়েখ, সাংবাদিক পেশাজীবি, বুদ্ধিজীবি সহ অগণিত নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন ।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ