,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

মাঠ খেয়েছে মেঘনা, ভাঙনের মুখে স্কুল

লাইক এবং শেয়ার করুন

কিশোর কুমার দত্ত, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: খুব বেশিদিন আগের কথা নয়, মাত্র কয়েকদিন আগেও এই স্কুল মাঠে ছাত্রছাত্রীরা খেলাধূলা সহ নানা রকম অনুষ্ঠান হতো। এ মাঠটি ছিলো এলাকার জন্য মিলন মেলা। কিন্তু এখন তা ইতিহাস মাত্র। প্রতিদিন এই মাঠ দিয়েই চলছে হাজারো নৌকা, জেলোরা ধরছে মাছ আর নদীর উত্তাল ঢেউ বিদ্যালয়টির শেষ অংশটুকুও বিলীনের পথে।

মাঠটি লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার রঘুনাথপুর পল্লীমঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয়ের ছিলো। এ বিদ্যালয়ের মাঠ দিয়ে নৌকায় চলাচল করে প্রতনিয়ত। এই বিদ্যালয়টি বহু পুরাতন একটি স্কুল, এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৬২ সালে। বিদ্যালয়টির বেহাল অবস্থা দেখে বিদ্যালয়ের ৪২০ জন শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক সহ এলাকাবাসী রয়েছেন দু:চিন্তার মধ্যে। না জানি এসব শিক্ষর্থীর শিক্ষা এখানে শেষ।  

রঘুনাথপুর এলাকার বাসিন্দা মো: আজাদ উদ্দিন জানান, রঘুনাথপুর পল্লীমঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয়ের পাশে রঘুনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি কিছুদিন আগে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায়। রঘুনাথপুর পল্লীমঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয়টিও ভংকর মেঘনার করাল গ্রাসে বিলীনের পথে। দ্রুত এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

রঘুনাথপুর পল্লীমঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) বাবুল চন্দ্র মজুমদার জানান, বিদ্যালয়ের মাঠটি ইতিমধ্যে মেঘনায় বিলীন হয়ে গেছে, এখন সে মাঠ দিয়ে চলেছে নৌকা। নদীতে অধিক জোয়ারের সময় একাডেমিক ভবনে পানি উঠে। স্থানান্তরের বিষয়ে তিনি বলেন, আগামী জানুয়ারি মাসে নতুন স্থানে বিদ্যালয়টি স্থানান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। তবে, দ্রুত সরকারি কিংবা বে-সরকারি উদ্যোগে নদী ভাঙ্গনরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়ে বিদ্যালয়ের বাকি ভবনটুকু রক্ষা পাবে।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম দিদার জানান, নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নেওয়া হলে অচিরেই শেষ হবে যাবে উপজেলার পুরানো ওই বিদ্যালয়টি। এ বিষয়ে রামগতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস এম শফি কামাল বলেন, উপজেলার ভাঙ্গন কবলিত রঘুনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থানান্তর করা হয়েছে। এছাড়া বড়খেরী ইউনিয়নের রঘুনাথপুর পল্লীমঙ্গল উচ্চ বিদ্যালয় ও চর আবদুল্ল্যাহ ইউনিয়নের চর সেবেজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি বর্তমানে ভাঙ্গনের মুখে রয়েছে। দ্রুত এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে জানান এই কর্মকর্তা।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ