,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির কফিনে শেষ পেরেক ঠুকেছে জেলা বিএনপি

লাইক এবং শেয়ার করুন

বিশেষ প্রতিবদক # আজ আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির ইফতারে ভাঙ্গন চূড়ান্ত করে এসেছে জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ। দীর্ঘ দিন যাবত আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপিতে যে অচলাবস্থা চলছে তা আরও চূড়ান্ত রূপ দিয়ে এসেছে জেলা বিএনপির উপস্থিত এক অংশের নেতৃবৃন্দ। এটা আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির ইফতার নাকি আবু আসিফ আহমেদ এবং নাছির আহমেদের ইফতার। দীর্ঘ দিন যাবত মূল ধারার নেতৃবৃন্দকে দাওয়াতই দেয়া হয়নি। জেলা বিএনপির যারা উপস্থিত ছিলেন তাঁরা কি পারতো না সকলকে নিয়ে ইফতার করতে ? নাকি ব্যবসায়ী আবু আসিফ এবং নাছির আহমেদের নিকট থেকে খাম নেওয়ার জন্য এই ইফতারে যোগ দেয়া।

দীর্ঘ ১ বছর ৮ মাসে আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির কমিটি চূড়ান্ত হয়নি। কি কারনে হয়নি জেলার সকলেই অবগত আছেন। এই ইফতারে দাওয়াত দেওয়া হয়নি আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি জহিরুল ইসলাম জারু মিয়াকে, আরও দাওয়াত পাননি বর্তমান কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি সাদেকুর রহমানকে, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সহ সভাপতি মোঃ জাকির হোসেনকে, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক শাহজাহান সিরাজ সহ মূল ধারার কোনো নেতাকর্মীকে। সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মোঃ শাহজাহান ও মুশফিকুর রহমানের চাপে ২ ব্যবসায়ীকে একত্র করে এই ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এখানে কুমিল্লা বিভাগীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক, ৯০ এর দশকের তুখোড় ছাত্রনেতা ও ঢাকা কলেজের সাবেক জিএস হাজী মোঃ আঃ আউয়াল খান জ্বালাময়ী বক্তব্য রেখেছেন।

বিএনপি’র আরেক নেতা আউয়াল খানকে বলেন, আপনার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলছি আপনি কি সব কিছু জেনে এসেছেন নাকি সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মোঃ শাহজাহানের অপকর্মকে জায়েজ করার জন্য এসেছেন। আমার জানামতে আমি আপনাকে যতটুকু চিনি আপনি যেনে আসেননি। আপনি ষড়যন্ত্রের স্বীকার। আপনি ছাত্রজীবন থেকেই একজন ভাল বক্তা। আপনি কাদের বলেছেন আশুগঞ্জ পুর্নাঙ্গ কমিটি করার কথা যে, কচি মোল্লা আনিসুর রহমান মঞ্জুরা সহ মুশফিকুর রহমান, সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মোঃ শাহজাহান পদ পদবী বিক্রি করে কমিটি করতে দিচ্ছে না। একবারের জন্য ও খোঁজ নিয়েছেন বাকীরা কোথায় ছাত্র রাজনীতি করে উঠে এসেছেন, আপনি ও এক দিন পদ পদবী বিহীন ছিলেন যন্ত্রণাটা আপনার ভাল বুঝার কথা। আপনি কি একবারের জন্য ও জানতে চেয়েছেন? নাকি আপনি ও খামের দলে আমার নিকট সমস্ত তথ্য উপাত্ব আছে, আপনাকে কিছু দিয়েছিলাম বাকী গুলো ও পাবেন। আপনার প্রতি আমার বিশেষ অনুরোধ কারা দলটাকে ধ্বংস করছে তাদের চিহ্নিত করুন। আমরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া নিয়ে যে লড়াইয়ে নেমেছি যত বড় শক্তি সিণ্ডিকেট হোক না কেন আমরা ভাঙবোই।

আবু আসিফ ও নাছির আহমেদের ইফতার মাহফিলে বক্তারা আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির পূনাঙ্গ কমিটি দ্রুত ঘোষনা করার আহবান

চট্রগ্রাম বিভাগীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আওয়াল বলেছেন, বিএনপির সু সংগঠিত করতে হলে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে। এ জন্য নবগঠিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ও আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির পূনাঙ্গ কমিটি দ্রুত ঘোষনা করতে হবে। তিনি আরো বলেন, শহীদ জিয়ার আদর্শকে লালন করে দলকে আরো সু সংগঠিত করে আগামীদিনে সরকারের পতন ঘটাতে হবে। তিনি আরো শহীদ জিয়ার আদর্শকে লালন করে দলকে আরো সু সংগঠিত করে আগামীদিনে সরকারের পতন ঘটাতে হবে। বৃহস্পতিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি বক্তব্যে এ কথা বলেন।

আশুগঞ্জ শহরের শরিয়তনগরে উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু আসিফ আহমেদের সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক নাছির আহমেদের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক এডভোকেট আনিছুর রহমান মঞ্জু, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক মোঃ আজিম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আলী আজম, জেলা যুবদলের সভাপতি মনির হোসেন, বিএনপির নেতা আজিজুর রহমান জজ মিয়া, রফিকুল ইসলাম মোল্লা, উপজেলা যুবদলের সাধারন সম্পাদক মুর্শেদ খান, সাংগঠনিক সম্পাদক নাছির উদ্দিন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক রেজোয়ান রাসেল, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেন জয়, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দিন আহমেদ। এ ছাড়া উপজেলা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন।ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাতে স্বেচ্ছাসেবক দলের কোন কমিটি নেই, স্বেচ্ছাসেবক দলের যে কমিটির কথা লেখা আছে তা হচ্ছে মুশফিকুর রহমান এবং সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মোঃ শাহজাহানের অনৈতিক লেনদেনের ফসল।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ