,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

ঝিনাইাদহে সরকারী চাকুরী জীবির বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

লাইক এবং শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ # ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের এক সরকারী চাকুরীজীবির বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত ব্যক্তি এ,কে,এম জহুরুল হক (লিটন) শৈলকুপা উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর এবং হাকিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল জলিলের ছেলে।

তার বিরুদ্ধে রির্টানিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন হাকিমপুর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ওয়াহিদ্জ্জুামান।
লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, শৈলকুপা উপজেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর এ,কে,এম জহুরুল হক (লিটন) হাকিমপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে মিছিল ও শো-ডাউন করে এবং প্রচারণা চালায়। যা কিনা নির্বাচন আচরণ বিধি লঙ্ঘনের আওতায় পড়ে।

নির্বাচনী আচরণ বিধিমালার ১১ (২) ধারায় বলা হয়েছে নির্বাচন পূর্ব সময় কোন প্রকার মিছিল বা কোন শো-ডাউন করা যাবে না। এছাড়াও নির্বাচন আচরণ বিধিমালার ২২ (১) ধারায় বলা হয়েছে সরকারী সুবিধাভোগী অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি এবং কোন সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী নির্বাচন পূর্ব সময়ে নির্বাচনী এলাকায় প্রচারণায় বা নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করিতে পারিবেন না।

অথচ নির্বাচন আচরণ বিধিমালায় সুস্পষ্ট ভাবে উল্লেখ থাকা সত্বেও ১১মে বুধবার দুপুরে ওই সরকারী চাকুরিজীবি এ,কে,এম জহুরুল হক (লিটন) হাকিমপুর ইউনিয়নে নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেন। তিনি মিছিল ও শো-ডাউন শেষে নির্বাচনী সভায় অংশগ্রহণ করে বিধিমালার দুটি আইন লঙ্ঘন করায় তার বিরুদ্ধে লিখিত এ অভিযোগ দায়ের করেছেন হাকিমপুর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান। লিখিত এ অভিযোগের অনুলিপি ও ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের স্বার্থে নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশগ্রহণকরাকালীন ফটো সংযুক্ত করে সচিব, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক, জেলা প্রশাসক, ঝিনাইদহ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শৈলকুপা, জেলা নির্বাচন অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন অফিসে পাঠানো হয়েছে।A.K.M Jahurul hoque.01এ ব্যাপারে শৈলকুপা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সহিদুর রহমান জানান, তার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ এসেছে তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে। হাকিমপুর ইউনিয়নের দায়িত্বরত রিটার্নিং কর্মকর্তাও একই কথা বলেছেন।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ