AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

রসরাজ দাসের মুক্তি চাই।

লাইক এবং শেয়ার করুন

অজন্তা দেব রায় | গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তা বলেছেন রসরাজ ফেসবুকে নিজে পোস্ট না করে থাকলেও একাউন্ট যেহেতু তার সেজন্য তাকেই দায় নিতে হবে। ফরেনসিক রিপোর্টে প্রমাণিত হয়েছিল রসরাজ নির্দোষ। বিভিন্ন পত্র পত্রিকার অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে উঠে এসেছে – রসরাজ দাস ফেসবুকের ওই পোস্ট দেয় নি। মন্ত্রী সায়েদুল ও তার বক্তব্যে পরিষ্কার বলেছিলেন যে ইন্টেলিজেন্সের রিপোর্ট অনুযায়ী রসরাজ দোষী নয়।

এখন গোয়েন্দা দের কাজ হচ্ছে তদন্ত করে সঠিক ঘটনা কি ঘটেছে সেই ‘তদন্ত প্রতিবেদন’ আদালতে উপস্থাপন করা। আশা করবো তারা ‘ফেইসবুক একাউন্ট রসরাজের বিধায় রসরাজ দায় এড়াতে পারেন না’ টাইপ কোনো বুজরুকি যুক্তি দিয়ে অসহায় মানুষটাকে আর বিনাদোষে জেলে আটকে রাখবেন না।

বাংলাদেশকে ডিজিটাল করতে গিয়ে অনলাইনের বিপদ/সাইবার অপরাধ সম্পর্কে জ্ঞান না দিয়েই অল্পশিক্ষিত জেলের হাতেও ফেইসবুক চালানোর যারা সুযোগ করে দিয়েছেন সবচাইতে বড় দায় তো তাহলে তাদের।

ডিজিটাল বাংলাদেশ না হলে হাতে হাতে মোবাইল আর ইন্টারনেট থাকতো না, ফেসবুকে একাউন্ট থাকতো না আর ফেইসবুক না থাকলে এই অঘটন ও ঘটতো না। সুতরাং, ক্ষমতা থাকলে তাদেরও কাঠগড়ায় দাঁড় করেন। আর তা না পারলে গরিব অসহায় রসরাজ কে মুক্তি দিন।

লেখক : ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইমস রিসার্চ ফাউন্ডেশন; কলামিস্ট ।

 


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ