,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

রাকসু সচল থাকলে অন্যদলের চেহারা বদলে যাবে

লাইক এবং শেয়ার করুন

জি.এ.মিল্টন,রাবি প্রতিনিধি: এরশাদের আমলেও রাকসু সচল ছিল। কিন্তু বর্তমান সরকার এবং তার আগের সরকার নানা ভাবে রাকসুকে বন্ধ করে রেখেছে। কারণ তাদের ছাত্র সংগঠন গুলোকে তারা নির্বাচন করতে চায়। কিন্তু তারা পারে না। যদি রাকসু সচল থাকে তাহলে সংগঠন গুলোর (ছাত্রলীগ , ছাত্রদল, ছাত্রশিবির) চেহারা বদলে যাবে। কারণ তারা এটা চাইছে না।

শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ার সামনে রাবি শাখা ছাত্র ফেডারেশনের দুইদিন ব্যাপি সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক উৎসব মোছাদ্দেক।

উৎসব মোছাদ্দেক বলেন, সুন্দববনের রামপাল বিদ্যুত উতপাদন করা হয় তাহলে সুন্দরবনের অনেক হুমকিতে পড়বে আমরা সাধারণ ভাবে চিন্তা করলেই দেখতে পাবো যে ওখানে বিদ্যুত কেন্দ্র করলে সুন্দরবন ধ্বংস হয়ে যাবে। এই সুন্দরবনকে রক্ষা করার জন্য আমাদের ছাত্র সমাজকেই রুখে দাঁড়াতে হবে।

তিনি রাকসু সচল রাখা নিয়ে বলেন, আমাদের রাকসু যদি সচল না করা যায় তাহলে আসলে আমাদের (ছাত্রদের) বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার কোনো অর্থই হয় না।

ছাত্র ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বলেন, বর্তমান সরকার নানা ধরনে বৈশম্য মূলক চুক্তি করে আসছে। বর্তমানে যে বিদ্যুত প্রকল্পের চুক্তি হয়েছে তার থেকে আমরা যত বেশি সুবিধা পাবো তার চেয়েও বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবো। এ ধরনে আন্দোলন প্রতিহত করতে হলে আমাদের নতুন নেতৃত্ব তৈরি করতে হবে। ছাত্র সংসদ নির্বাচনের মাধ্যমে এ ধরনের নেতৃত্ব উঠে আসবে।

জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক উতসব মোছাদ্দেক এবং রাবি শাখার ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি কিংশুক কিঞ্জল।

এসময় রাবি ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক তমাশ্রী দাশের সঞ্চালনায় আরও উপন্থিত ছিলেন রাবি ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি কিংশুক কিঞ্জল, রাবি শাখা ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি এ.এম. শাকিল হোসেন, সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি আব্দুল মজিত অন্তর প্রমুখ।

 


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ