AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

বিশ্ববিদ্যালয় শুধু পড়াশোনার জন্য নয় বিশ্ব নাগরিক তৈরির জন্য

লাইক এবং শেয়ার করুন

জি.এ.মিল্টন,রাবি প্রতিনিধি: বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন অঞ্চলের, বিভিন্ন দেশ থেকে ছেলেমেয়েরা আসে পড়াশোনা করার জন্য। তাদের সাথে মিলেমিশে বিশ্ব নাগরিক হিসেবে তোমাদের গড়ে তুলতে হবে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বিদেশী শিক্ষার্থীদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। তোমরা যদি তাদের সাথে ভালো ভাবে মেলামেশা করতে পারো তাহলে তারা এখানে আরো ভর্তি হতে আগ্রহ হবে। আর তোমরা একে অপরকে নানা ভাবে সহযোগিতা করতে পারবে। তাহলে তোমরা হবে বিশ্বমানের। কেননা বিশ্ববিদ্যালয় শুধু মাত্র পড়াশোনা করার জন্য নয় এটি শিক্ষার্থীদের বিশ্বমানের নাগরিক তৈরি করার জন্য।

রোববার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজী নজরুর ইসলাম মিলনায়তনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের নবীন বরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাাচার্য প্রফেসর মুহম্মদ মিজানউদ্দিন।

তিনি আরো বলেন, এখানে তোমাদের নিজেদের অন্ধকার থেকে আলোরদিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রতীক হিসেবে মোমবাতি প্রজ্বালন করা হয়েছিল। সেই আলো আমরা তোমাদের দিয়ে ছড়াবো। যে আলো বিশ্ববিদ্যালয় ৬৩ বছর থেকে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে যাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় শুধু মাত্র ভালো ফলাফল তৈরি করার জন্য নয়। ভালো নাগরিক, দেশ প্রেমিক তৈরি করার জন্য। বিভিন্ন ধরনের নেতৃত্বের বিকাশ ঘটাবে এই বিশ্ববিদ্যালয়।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে উপাচার্য আরো বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে স্বাধীন জগৎ। এখানে একদিকে যেমন স্বাধীন পথ রয়েছে তেমনি রয়েছে নিজেদের বিপদ গমনের নানান সম্ভবনা। তোমরা তরুন হিসেবে নিজেদের দিকে তাকাও। তোমাদের মধ্যে রয়েছে অফুরন্ত সম্ভবনা। এই সম্ভবনাকে কাজে লাগিয়ে আজ যে জায়গায় তোমরা এসেছো যে জায়গা থেকে তোমরা যখন বিদায় নিবে তখন পরিবর্তিত একটি মানুষ হিসেবে বিদায় নেবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর মুহাম্মদ এন্তাজুল হক এর সঞ্চালনায় নবীন বরণ অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর চৌধুরী সারওয়ার জাহান, কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর সায়েন উদ্দিন আহমেদ, ছাত্র উপদেষ্টা প্রফেসর মিজানুর রহমান, প্রক্টর মুজিবুল হক আজাদ খান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে নবীন শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য দেন রসায়ন বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদুর রহমান ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের জান্নাতুল ফেরদাউস জেরিন।

 


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ