,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

ইলিয়াস ইস্যুতে ফের আন্দোলনে বিএনপি

লাইক এবং শেয়ার করুন

১২ সালের ১৭ এপ্রিল। এদিন রাতে রাজধানীর হোটেল শেরাটন থেকে বের হওয়ার পর গাড়িচালক আনসার আলীসহ নিখোঁজ হন বিএনপির কেন্দ্রীয় ও বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এম. ইলিয়াস আলী। এরপর বনানী থেকে তার গাড়ি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। কিন্তু গাড়িচালকসহ ইলিয়াস আলীর সন্ধান আজও মেলেনি।

তার সন্ধানের দাবিতে তখন সারাদেশে আন্দোলনও হয়েছিল। এমনকী আন্দোলন করতে গিয়ে সিলেটের বিশ্বনাথে ২ জন নিহতও হন। কিন্তু নিখোঁজ ইলিয়াস আলী কোথায় আছেন, নাকি আর বেঁচে নেই, সে খবর আর কেউ জানেন না। তার সন্ধানে স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা দলীয় নেতাকর্মীসহ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত তার স্বামীর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

দলীয় নেতাকর্মীদের পাশাপাশি রুশদীর লুনাও আশা ছাড়েননি তার স্বামীর ফিরে আসার ব্যাপারে।

জানা গেছে, ইলিয়াস আলী নিখোঁজ হওয়ার ৪ বছর পর আবারও আন্দোলনের নামার পরিকল্পনা করছে বিএনপি। দলীয় সূত্র এমন তথ্যই দিয়েছে।

সূত্রটি জানায়, বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম. ইলিয়াস আলীর নিখোঁজ হওয়ার ৪ বছর পূর্তি ছিল রোববার (১৭ এপ্রিল)। এদিন বিকেলে তার বনানীর বাসায় যান বিএনপির নতুন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এ সময় তিনি ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। এছাড়াও ইলিয়াস আলীর সন্ধানে বিএনপি নতুন কর্মসূচি দেবে বলেও আশ্বাস দেন।

অপরদিকে, রোববার রাতে বিএনপির নতুন সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাখাওয়াত হোসেন জীবনও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম. ইলিয়াস আলীর বাসায় যান। এ সময় তিনিও ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। ইলিয়াস আলী ইস্যু নিয়ে সিলেট বিএনপি ফের আন্দোলনে নামবে বলে আশ্বাস দেন।

এমন সত্যতার কিছুটা আভাসও পাওয়া গেছে। ইলিয়াস আলীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে রোববার রাত পৌনে ১২টার দিকে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাখাওয়াত হোসেন জীবন এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলী ইস্যু নিয়ে সিলেট বিভাগে আবারও আন্দোলনের প্রস্তুতি চলছে। বিষয়টি তিনি ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনাকে জানিয়েছেন বলে জানান।

চলতি মাসের ২৩ এপ্রিল তৃতীয় দফা ইউপি নির্বাচন শেষে   ডা. শাখাওয়াত হোসেন জীবন সিলেট আসবেন জানিয়ে তিনি বলেন, এ সময় আমি সিলেট বিএনপির শীর্ষ নেতাদের নিয়ে বৈঠক করবো। ওই বৈঠকে ইলিয়াস আলী ইস্যুতে কিছু কর্মসূচি নেয়া হবে।

ডা. জীবন জানান, সোমবার ইলিয়াস আলীর সন্ধানের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে একটি সভার আয়োজন করা হয়েছে। ওই সভায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত থাকবেন। ওই সভায় তিনি নিখোঁজ ইলিয়াস আলীর ইস্যুতে কেন্দ্রীয় বিএনপির পক্ষ থেকে আন্দোলন ঘোষণার দাবি তুলবেন। এদিকে, ইলিয়াস আলীর সন্ধানের দাবিতে সিলেট জেলা বিএনপি মাসব্যাপী কর্মসূচি পালন করছে।

এ বিষয়ে সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ বলেন, আমরা এখনো বিশ্বাস করি, ইলিয়াস আলী বেঁচে আছেন এবং সরকারের হেফাজতে আছেন। তাকে ফিরিয়ে দেয়ার জন্য সরকারের কাছে আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, ইলিয়াস আলীর সন্ধান দাবিতে মাসব্যাপী কর্মসূচি চলছে। তার সন্ধান দাবির আন্দোলন আগামীতে আরো জোরদার হবে।

প্রসঙ্গত, সিলেট বিএনপিতে একক আধিপত্য, ভারতের সীমান্ত আগ্রাসনের প্রতিবাদ, টিপাইমুখ বাঁধবিরোধী আন্দোলন এসব মিলিয়ে ইলিয়াস আলী ক্রমেই সিলেটে জনপ্রিয় এক নেতা হয়ে উঠেছিলেন। ঠিক তখনই ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল মধ্যরাতে ঢাকার বনানী দুই নম্বর রোড থেকে নিখোঁজ হন ইলিয়াস আলী। তার সঙ্গে থাকা গাড়িচালক আনসার আলীর ভাগ্যেও একই পরিণতি ঘটে।

সে দিনের পর থেকে আজ পর্যন্ত তাদের খোঁজ মেলেনি। ইলিয়াস আলীর অপেক্ষায় রাজপথে আন্দোলন করে নেতাকর্মীরা কাটিয়ে দিয়েছেন ৪টি বছর। কিন্তু সেই অপেক্ষার প্রহর যেন শেষ হচ্ছেই না। সেই সঙ্গে ইলিয়াস আলীর পরিবারের সদস্যরাও তার ফিরে আসার পথ চেয়ে রয়েছেন!


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ