AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

সাংবাদিকদের স্যালুট জানাই : কামরুল ইসলাম

লাইক এবং শেয়ার করুন

দেশের বিভিন্ন ক্লান্তিকালে সাংবাদিকদের ভূমিকা টেনে খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধ, স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন ও নানা ক্রান্তিকালে সাংবাদিকরা গৌরবজ্জল ভূমিকা পালন করেছেন। তাই তাদের স্যালুট না জানিয়ে পারছি না। স্যালুটের মাধ্যমে তাদের এ অবদান স্বীকার করছি। শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স কক্ষে সাংবাদিক অধিকার ফোরামের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

কামরুল বলেন, একটা সময় ছিল যখন সাংবাদিকদের কলাম রাষ্ট্রীয় সিন্ধান্তে প্রভাব ফেলতো। এ প্রসঙ্গে তিনি সাংবাদিক মানিক মিয়া, জহুর আহমদ চৌধুরীর নাম উল্লেখ করেন। কামরুল ইসলাম বলেন, জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িতার বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের ভূমিকার প্রশংসা না করে উপায় নেই। এজন্য সাংবাদিকের স্যালুট জানাই।

জিয়ার মাজারের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, জাতীয় সংসদ নিয়ে স্থপতি্ লুই আই কানের নকশা বাস্তবায়নে জিয়াউর রহমানসহ সবার কবর সরানো হবে। শুধু জিয়াউর রহমানের কবর সরানোর জন্য নকশা আনা হয়নি বরং ওই এলাকায় এম সবুর খানসহ আরো যাদের কবর আছে, সব সরিয়ে লুই আই কানের নকশা বাস্তবায়ন করা হবে। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমানের নাম ইতিহাস থেকে সরকার মুছে ফেলতে চায় না। ইতিহাসে জিয়াউর রহমান খলনায়ক হিসেবেই চিহ্নিত হয়ে থাকবেন। সরকার সে হিসেবেই তাকে রাখতে চায়।

খালেদা জিয়ার মামলা প্রসঙ্গে কামরুল বলেন, খালেদা জিয়ার দুনীর্তির মামলার বিচার কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। প্রকাশ্য আদালতে বিচার হচ্ছে। এই মামলায় যে রায় হবে তাই মেনে নেয়া হবে। বাংলাদেশ সাংবাদিক অধিকার ফোরামের উপদেষ্টা আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ