,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

হামলাকারীরা উচ্চ শিক্ষিত ও প্রভাবশালী পরিবারের

লাইক এবং শেয়ার করুন

রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্টুরেন্টে হামলায় জড়িতরা জঙ্গিগোষ্ঠীর সদস্য এবং প্রভাবশালী পরিবারের সন্তান। এদের মধ্যে অনেকেই সমাজে প্রতিষ্ঠিত ও উচ্চশিক্ষিত। একজনের বাবা ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক। বিভিন্ন বিশ্বস্ত সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।
 
অন্যদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানিয়েছেন, কথিত ইসলামিক স্টেটের সঙ্গে তাদের কোনও যোগাযোগ নেই। গুলশানের ওই ঘটনায় জড়িতরা স্থানীয় জঙ্গিগোষ্ঠীর সদস্য।
 
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তারা সবাই বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া উচ্চশিক্ষিত তরুণ এবং ধনী পরিবারের সন্তান। এরা কেউ কখনই মাদ্রাসায় পড়তে যায়নি।
 
ইসলামিক জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়া আজকাল একটা ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে বলেও বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বরাতে খবর প্রকাশ করা হয়।
 
jasim

অন্যদিকে ফেসবুকে মজিনা রহমান নামে ঢাবির সাবেক শিক্ষার্থী আমেরিকা প্রবাসী নারী ৯ ঘণ্টা আগে তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে জানান, ‘ছবিটা দেখে প্রচণ্ডভাবে চমকে উঠলাম। মাঝখানের ছেলেটি শুক্রবার গুলশানের রেস্টুরেন্টে জিম্মির ঘটনায় নিহত এক জঙ্গি। সঙ্গে তার বাবা-মা। ডান পাশে দাঁড়ানো ছেলেটির বাবা বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনের একজন অতি পরিচিত মুখ। বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন এবং বাংলাদেশ বাস্কেটবল ও সাইক্লিং ফেডারেশনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক।’
 
তিনি আরও লেখেন, ‘যে কোন সংগঠককে সমাজের অগ্রসর মানুষ হিসেবে দেখা হয়, তার সন্তানের এমন পরিণতি কল্পনাই করা যায় না! একদিকে প্রাণপ্রিয় সন্তানের কলংকজনক মৃত্যু, অন্যদিকে রাষ্ট্র-জনগণের ধিক্কার…জানি না এরপর সমাজে ওনারা মুখ দেখাবেন কীভাবে?’
 
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাবুল ঢাকা মহানগর উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থী ছিলেন।
 
গুলশান হামলার পর সাইট ইন্টেলিজেন্স হামলাকারী হিসেবে যেসব জঙ্গির ছবি প্রকাশ করে সেখান থেকে রোহানের পরিবারের এক ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করে তার পরিচিতজনরা। গুলশানে হামলাকারী রোহান ইমতিয়াজের ছবির সঙ্গে মিল রয়েছে। ফেসবুকে ইমতিয়াজ খান বাবুলের সঙ্গে তার ছেলে রেহান ইমতিয়াজের ছবিও পোস্ট করা হয়েছে।
 
ইমতিয়াজ খান বাবুলের নির্বাচনী লিফলেটের তথ্য অনুযায়ী তিনি ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল, সাইক্লিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও ফিবার রেফারি।
 
রোহানের মা স্কলাসটিকা স্কুলের একজন শিক্ষিকা, মা-বাবার একমাত্র ছেলে রোহানের দুই বোন আছে এবং তারা মোহাম্মদপুরে বসবাস করেন বলে জানা গেছে।
 
উল্লেখ্য, রাজধানীর গুলশানের ‘হলি আর্টিসান বেকারি’ নামের একটি রেস্টুরেন্টে শুক্রবার রাতে ৮/৯ জনের একটি অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী দল ঢুকে দেশি-বিদেশি অতিথিদের জিম্মি করে। প্রায় ১২ ঘণ্টা পর শনিবার সকালে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে কমান্ডো অভিযানের মধ্য দিয়ে নিয়ন্ত্রণ নেয় নিরাপত্তা বাহিনী। এ ঘটনায় ৯ জন ইতালিয়ান, ৭ জন জাপানি, ৩ জন বাংলাদেশি এবং ১ জন ভারতীয় নাগরিক নিহত হন।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ