,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

দুর্দান্ত জয়ের পর যা বললেন মেসি

লাইক এবং শেয়ার করুন

জটিল সমীকরণ।  বলা চলে চ্যালেঞ্জিও।  তবে সেই সব কঠিন সমীকরণ আর চ্যালেঞ্জকে সহজ করে ২০১৮ রাশিয়াক বিশ্বকাপে নিজেদের টিকিট নিশ্চিত করেছে আর্জেন্টিনা। তাও আবার বার্সার আর্জেন্টাইন রাজপুত্র লিওলেন মেসির দুর্দান্ত হ্যাটট্রিকে। ম্যাচটিতে শুরুর এক মিনিটের মাথায় ১ গোল হজম করা আর্জেন্টিনাকে স্বপ্নের বিশ্বকাপের খেলার সুযোগ করে দেন তিনি।  প্রায় ১৬ বছর আগে একুয়েডরের মাঠতে খেলেছিল আর্জেন্টিনার। ম্যাচটিতে হারের স্বাদ নিতেও হয়েছিল তাদের। আর্জেন্টিনা ছাড়াও মাঠটিতে ব্রাজিল-ফ্রান্সের মতো শক্তিশালী দেশগুলোরও খেলা দুঃসাধ্য।  কারণ এটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় নয় হাজার ফুট উপরে অবস্থিত।

আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপের টিকিটটা এনে দিতে পেরে দারুণ স্বস্তিতে মেসি। যা পরিষ্কার তার কথায়। ২০১৬–র নভেম্বরের পর থেকে মেসি আর তার সতীর্থরা মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেননি। তবে এদিন মন খুলে কথা বলেছেন তারা।প্রাণ খুলে, ‘‌ইকুয়েডরে খেলতে আসার আগে ভয় কাজ করে। সব সময়। কিন্তু আমরা লাকি। তাই ঠিক সময়ে জ্বলে উঠেছি। আমরা ধির ছিলাম, স্থির ছিলাম। আমরা গোল করেছি। যে গোলের লক্ষ্যটা নিয়েই এসেছিলাম এখানে। বলতে পারেন, কাজের কাজটা করতে পেরেছি।’‌

এতখানি বলার পর কয়েক সেকেন্ডের বিরতি। তারপর?‌ মেসির মনের একেবারে ভেতরের কথাটা বেরিয়ে এলো, ‘‌বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা নেই?‌ তেমনটা হলে, পাগলামি বলতে হতো।  এই দলের ক্ষমতা আছে বিশ্বকাপে খেলার। আমরা তিন–তিনটি বড় টুর্নামেন্টের ফাইনালে ওঠার পরও সমালোচনার ঝড় বয়ে গেছে!‌ জানেন, আমরা মিডিয়ার থেকে, সাধারণ মানুষের থেকে ইচ্ছে করেই দূরে ছিলাম। এই দূরত্বটাই আমাদের মানে আর্জেন্টিনার ফুটবলারদের কাছাকাছি এনেছে। বিশ্বাস করি, এভাবে হাতে–হাত রেখে যদি এগোতে পারি, তা হলে আমাদের সব কাজ সহজ হয়ে যাবে। দু’‌ দুটি কোপা আমেরিকা আর বিশ্বকাপ ফাইনালে আমাদের সঙ্গে যা ঘটেছে, তা একেবারেই ঠিক হয়নি। আশা রাখছি, এবার আমরা অন্তত কাপটা হাতে নিতে পারব। নিজেদের জন্যই ওই কাপটা হাতে নিতে চাই। যোগ্যতা পর্বটা উপভোগ করেছি। আমাদের দল প্রতিদিন তৈরি হবে। প্রতিদিন বড় হবে। দলটা বদলাবেই। বিশ্বকাপে অন্য এক আর্জেন্টিনাকে দেখবেন। এই আর্জেন্টিনা আরো আরো উন্নত হবে।’‌

মেসি যখন এভাবে বললেন, তখন কোচ সাম্পাওলিও লুকিয়ে রাখতে পারলেন না আবেগ। তবে সেই আবেগের মুহূর্তে বললেন একেবারে সঠিক কথাটা, ‘‌জানেন, ছেলেদের কী বলেছি?‌ মেসি আমাদের বিশ্বকাপে নিয়ে যায়নি, ফুটবলই মেসিকে নিয়ে গেছে বিশ্বকাপে। আমরা লাকি, বিশ্বের সেরা ফুটবলার মেসির দেশ আর্জেন্টিনা। ফুটবল বলুন আর বিশ্বকাপ— মেসি ছাড়া কল্পনাই করা যায় না। আমাদের একথা মাথায় নিয়েই খেলতে নামতে হয়েছিল। এই যোগ্যতা পর্ব, এই ভয়ঙ্কর চাপ আমার দলকে আরও শক্তিশালী করে দিয়ে গেল। বিশ্বকাপে মেসিকে সাহায্য করার আরো একবার সুযোগ পাব আমরা। সেই সুযোগটা ষোলো আনা কাজে লাগাতে চায় ফুটবলাররা।’‌ ‌‌


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ