,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

শাদাবের ভেল্কিতে কুপোকাত ক্যারিবীয়রা

লাইক এবং শেয়ার করুন

ম্যাচের শুরুতেই শঙ্কা ছিল ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে জর্জড়িত পাকিস্তান ক্যারিবীয় সফর কতটা সফল হয়। কিছুদিন আগেই পিএসএলে স্পট ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে নিষিদ্ধ হয়েছেন মোহাম্মদ ইরফান, শারজিল খানের মতো জাতীয় দলের তারকারা। তাদের আজীবন নিষিদ্ধের শাস্তি চান টেস্ট অধিনায়ক মিসবাহ-উল হকসহ পাকিস্তানের বেশির ভাগ সাবেক ক্রিকেটার। সেই কেলেঙ্কারি পেছনে ফেলে স্বরূপেই মাঠে ফিরেছে পাকিস্তান ক্রিকেটাররা। বলতে গেলে একপেশে ভাবেই চার ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-২০ জিতে নিল পাকিস্তান।

অভিষিক্ত লেগস্পিনার শহদাব খানের বোলিং নৈপুণ্যে জয় দিয়ে ক্যারিবীয় সফর শুরু করেছে পাকিস্তান। চার ওভার বোলিং করে মাত্র ৭ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিং লাইনআপ দুমরে-মুচরে দিয়েছেন এই তরুণ স্পিনার। তার বোলিং তোপে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১১ রান করে কার্লোস ব্রাথওয়েটের দল। জবাবে ৬ উইকেট ও ১৭ বল হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পাকিস্তান।  এই জয়ে চার ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল পাকিস্তান। 

কিংস টাউন ওভালে টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৩ রানের মাথায় ওপেনার ইভিন লুইচকে হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১০ বলে ১০ রান করে রানআউট হয়ে ফেরেন তিনি। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে স্বাগতিকরা। এক পর্যায়ে ৪৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে এক রানের নিচে অলআউট হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছিল। কিন্তু শেষ দিকে অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথওয়েটের ২৭ বলে ৩৪ রান ও জেসন হোল্ডারের ১২ বলে ১৪ রানের ইনিংসের সুবাদে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১১ রান করতে সমর্থ হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 

পাকিস্তানের হয়ে শাদাব খান সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন। এছাড়া সোহেল তানভির, হাসান আলি ২টি করে উইকেট নেন। ইমাদ ওয়াসিম ও ওয়াহাব রিয়াজ নেন ১টি করে উইকেট।  জবাবে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২৫ রানের মাথায় ওপেনার আহমেদ শেহজাদকে (১৩) হারায় পাকিস্তান। এরপর দলীয় ৪০ রানের মাথায় অপর ওপেনার কামরান আকমল ২২ রান করে ফিরে যান। দ্রুতই ফিরে যান মোহাম্মদ হাফিজ (৫)। 

তবে চতুর্থ উইকেট জুটিতে শোয়েব মালিকের সঙ্গে ৪৬ রানের জুটি গড়ে পাকিস্তানকে জয়ের কাছে নিয়ে যান বাবর আযম। দলীয় ৯৫ রানের মাথায় বাবর আযম (২৯) ফিরে গেলে শেষ পর্যন্ত ৩৮ রানে অপরাজিত থেকে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন মালিক। ক্যারিবীয় বোলারদের হয়ে জেসন হোল্ডার ২টি, স্যামুয়েল বদ্রি ও কার্লোস ব্রাথওয়েট ১টি করে উইকেট নেন। 


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ