,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

লড়াই করেই হারলো বাংলাদেশ

লাইক এবং শেয়ার করুন

২০৮ রানের বড় ব্যবধানে হেরে গেছে বাংলাদেশ। হায়দরাবাদে ভারতের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্টে এ শোচনীয় হার টাইগারদের। জয়ের জন্য ভারতের দেওয়া ৪৫৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ২৫০ রানেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা। দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের পক্ষে মাহমুদুল্লাহ সর্বোচ্চ ৬৪ রান করেন। এছাড়া সৌম্য সরকার করেন ৪২ রান। ভারতের পক্ষে রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাদের ৪টি করে উইকেট নেন। এছাড়া ইশান্ত শর্মা নেন দুটি উইকেট।পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে আগের দিন ৩ উইকেট হারিয়ে ১০৩ রান তোলা বাংলাদেশ ম্যাচের পঞ্চম ও শেষ দিনে সোমবার সকালে ফের ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায়।

ভারতীয় স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজার করা দিনের তৃতীয় ওভারেই ফিরে যান সাকিব আল হাসান। শর্ট লেগে চেতেশ্বর পূজারার হাতে ধরা পড়ার আগে তিনি করেন ২২ রান।এরপর মাহমুদুল্লাহকে সঙ্গে নিয়ে দলীয় সংগ্রহে ৫৬ রান যোগ করেন মুশফিক। তবে উইকেটে থিতু হওয়া এই ব্যাটসম্যান অশ্বিনের বলে হঠাৎই উড়িয়ে মারতে গিয়ে রবীন্দ্র জাদেজার হাতে ধরা পড়লে ভাঙ্গে জুটি। মুশফিক করেন ২৩ রান।

৫ উইকেটে ২০২ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যাওয়া বাংলাদেশ বিরতি থেকে ফিরেই উইকেট খুইয়ে বসে। দলের সংগ্রহ আর মাত্র ১১ রান যোগ হওয়ার পর সাব্বির রহমানকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে সাজঘরে ফেরত পাঠান ভারতীয় পেসার ইশান্ত শর্মা। সাব্বির করেন ২২ রান।এরপর টেস্টে নিজের ত্রয়োদশ অর্ধশতক তুলে নেওয়া মাহমুদুল্লাহ ইশান্ত শর্মার বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ভুবনেশ্বর কুমারের হাতে ধরা পড়লে বাংলাদশের সপ্তম উইকেটের পতন হয়। মাহমুদুল্লাহ করেন ৬৪ রান।

দলীয় ২৪২ রানে মেহেদি হাসান মিরাজকে আউট করে বাংলাদেশের অষ্টম উইকেটের পতন ঘটান রবীন্দ্র জাদেজা। উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে মিরাজ করেন ২৩ রান।এরপর ইনিংসের ৯৮তম ওভারে বোলিংয়ে এসে আবারও আঘাত হানেন জাদেজা। এবার তাইজুল ইসলামকে (৬) রাহুলের ক্যাচ বানিয়ে সাজঘরে ফেরত পাঠান তিনি। দলীয় সংগ্রহে আর মাত্র এক রান যোগ করার পর বাংলাদেশের শেষ ব্যাটসম্যান তাসকিন আহমেদ অশ্বিনের বলে এলবিডব্লিউর শিকার হয়ে আউট হলে ২০৮ রানের বড় জয় নিশ্চিত হয় স্বাগতিকদের।

রোববার বিকেলে পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি। ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে দলীয় ১১ রানে অশ্বিনের বলে তামিম বিরাট কোহলির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেলে সফরকারীদের প্রথম উইকেটের পতন হয়। তামিম করেন ৩ রান।এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে সৌম্য ও মুমিনুল ৬০ রান তুলে দলকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন। দলীয় ৭১ রানে সৌম্যকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙ্গেন ভারতীয় স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজা। স্লিপে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরার আগে সৌম্য করেন ৪২ রান।

হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তার দ্বিশতক এবং মুরালি বিজয় ও ঋদ্ধিমান সাহার জোড়া শতকে ভর করে প্রথম ইনিংসে ৬৮৭ রানের পাহাড় দাঁড় করায় স্বাগতিকরা।প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের পক্ষে তাইজুল ইসলাম ৩টি, মেহেদি হাসান মিরাজ ২টি ও তাসকিন আহমেদ একটি উইকেট শিকার করেন।

ভারতের ৬৮৭ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে সবক’টি উইকেট হারিয়ে ৩৮৮ রান তুলতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। দলের পক্ষে মুশফিকুর রহিম সর্বোচ্চ ১২৭ রান করেন। এছাড়া সাকিব আল হাসান ৮২ ও মেহেদি হাসান মিরাজ ৫১ রান করেন।প্রথম ইনিংসে ২৯৯ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ফের ব্যাট করতে নামে ভারত। চেতেশ্বর পূজারার অর্ধশতকে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান তোলার পর ইনিংস ঘোষণা করেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এতে ভারতের লিড বেড়ে দাঁড়ায় ৪৫৮ রানে। আর জয়ের জন্য ৪৫৯ রানের লক্ষ্য পায় মুশফিকুর রহিমের দল। তবে শেষ পর্যন্ত এক সেশন বাকি থাকতে ২৫০ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ