,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

রোনালদোর পেনাল্টি মিসে হতাশ পর্তুগাল

লাইক এবং শেয়ার করুন

জয়ের সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করে করলো পর্তুগাল। রোনালদোর পেনাল্টি মিসে অষ্ট্রিয়ার বিপক্ষে গোল শূন্য ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে ২০০৪ আসরের রানার্সআপদের। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে শুরু থেকেই একের পর এক আক্রমণ করে গেলেন রোনালদো-নানিরা। কিন্তু কেউই অষ্ট্রিয়ার গোলরক্ষক রবার্ট আলমারকে পরাস্ত করতে পারলেন না। ম্যাচের ১৩ মিনিটে নিজেদের প্রথম সুযোগ তৈরি করে পর্তুগাল। সঙ্গে লেগে থাকা এক জনের বাধা এড়িয়ে জোরালো শট নেন নানি। গোলরক্ষক ঠিকমতো বিপদমুক্ত করতে না পারলেও পোষ্টের বাধায় গোল হয়নি। ফিরতি বলে শট নেন মিডফিল্ডার জোয়াও মৌতিনিয়োর শট কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক।

ত্রয়োদশ মিনিটে ম্যাচে নিজেদের প্রথম সুযোগ তৈরি করে পর্তুগাল। সঙ্গে লেগে থাকা এক জনের বাধা এড়িয়ে জোরালো শট নেন নানি। গোলরক্ষক ঠিকমতো বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বলে শট নেন মিডফিল্ডার জোয়াও মৌতিনিয়ো; এবার কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান আলমের। ম্যাচের ২১ মিনিটে দারুণ এক সুযোগ পান রোনালদো। তবে ডিফেন্ডার রাফায়েল গুয়েরেইরোর বাড়ানো বল ছয় গজ বক্সের সামনে ফাঁকায় পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। ছয় মিনিট বাদে নানির হেড পোস্টে লাগলে হতাশা আরও বাড়ে পর্তুগিজদের। ফলে গোল শূন্য অবস্থায় বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতি থেকে ফিরে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে রোনালদো-নানিরা। এরই ধারাবাহিকতায় এক মিনিটের ব্যবধানে দুবার হতাশ হন রোনালদো। ম্যাচের ৫৪তম মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে রোনালদোর দুর্দান্ত শট কর্নারের বিনিময়ে প্রতিহত করেন। কর্নার থেকে সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকার হেড ঠেকান গোলরক্ষক।

ম্যাচের ৭৫তম মিনিটে ডিফেন্ডার মার্টিন হিন্টারেগার ডি বক্সের মধ্যে রোনালদোকে ফেলে দিলে পেনাল্টি পায় পর্তুগাল। স্পটকিকে গোলরক্ষককে সহজেই ফাঁকি দেন রোনালদো, কিন্তু বল মাঠে ফেরে পোস্টে লেগে। আর ম্যাচের ৮৫ মিনিটে হেডে বল জালে পাঠিয়ে উচ্ছ্বাসে মেতেছিলেন রোনালদো; কিন্তু রেফারি অফসাইডের বাঁশি বাজালে আবারও পর্তুগালের সঙ্গী হয় পয়েন্ট হারানোর হতাশা। ফলে ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় দুই দলকে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ