,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

শুরুতেই চাপের মুখে ঢাকা ডায়নামাইটস

লাইক এবং শেয়ার করুন

১৩৩ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমেছে ঢাকা ডায়নামাইটস। তবে বরিশাল বুলসের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে চাপে রয়েছে ঢাকার ব্যাটসম্যানরা। এ প্রতিবেদন খেলা পর্যন্ত ৯.৪ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ৫৮ রান করেছে ঢাকা। ঢাকার হয়ে ওপেন করতে নামেন কুমার সাঙ্গাকারা ও মেহেদি হাসান মারুফ। তবে প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে বরিশাল বুলসের স্পিনার তাইজুল ইসলামের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন এক রান করা মারুফ, সাঙ্গাকারা ৩২ ও সাকিব ২২ রানে সাজঘরে ফিরে যান।

এর আগে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) দিনের প্রথম ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বরিশাল বুলস অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে বরিশালের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৩২ রান। এ ম্যাচ জিতে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে যাওয়ার সুযোগ থাকছে সাকিব আল হাসানের ঢাকার সামনে।

মিরপুর শেরে-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দুপুর একটায় প্রথম ম্যাচে মাঠে নামে বরিশাল বনাম ঢাকা। এখন পর্যন্ত আট ম্যাচে পাঁচ জয় ও তিন হারে ১০ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের দ্বিতীয় অবস্থানে আছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা। অন্যদিকে এখন পর্যন্ত খুব একটা সুবিধে করতে পারেনি মুশফিকুর রহিমের বরিশাল। সমান আট ম্যাচে তিন জয় ও পাঁচ হারে ছয় পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে তারা। ফলে আসরে টিকে থাকতে হলে এ ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই দলটির সামনে। দু’দলের প্রথম সাক্ষাতে ঢাকা আট উইকেটের বড় জয় তুলে নিয়েছিল।

বরিশালের হয়ে ব্যাটিংয়ের উদ্বোধন করতে নামেন শাহরিয়ার নাফিস এবং দিলশান মুনাবেরা। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে বিদায় নেন শাহরিয়ার নাফিস। ১৩ বলে মাত্র ৩ রান করা বরিশালের এই ওপেনারকে ফেরান আবু জায়েদ। সেকুজে প্রসন্নর হাতে ধরা পড়ার আগে দলীয় রান ছিল ৬। চতুর্থ ওভারের শেষ বলে ১০ রান করা মুনাবেরা রানআউটের শিকার হন।

সপ্তম ওভারের শেষ বলে রানআউট হন জীবন মেন্ডিস। ডাবল রান নিতে গিয়ে মুশফিকের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে ফিরতে হয় ১৩ বলে ৭ রান করা মেন্ডিসকে। দলীয় ৩৭ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেট হারায় বরিশাল। এরপর জুটি গড়েন মুশফিকুর রহিম এবং নাদিফ চৌধুরি। বরিশালের দলপতি মুশফিকুর ঢাকার দলপতি সাকিবের বলে বোল্ড হওয়ার আগে করেন ৩৬ রান। ১৪তম ওভারে মুশফিক বিদায় নেওয়ার আগে ৩০ বল মোকাবেলা করে দুটি বাউন্ডারি হাঁকান। দলীয় ৮৪ রানের মাথায় বরিশাল তাদের চতুর্থ উইকেট হারায়।

এরপর বরিশালের রানের চাকা ঘোরাতে থাকেন নাদিফ চৌধুরি। তবে, ইনিংসের ১৬তম ওভারে রবি বোপারার বলে তুলে মারতে গিয়ে বাউন্ডারি সীমানায় সেকুজে প্রসন্নর দুর্দান্ত এক ক্যাচে ফিরতে হয় নাদিফকে। আউট হওয়ার আগে নাদিফ ২৫ বলে করেন ২১ রান। দলীয় ৯১ রানের মাথায় টপঅর্ডারের পাঁচ ব্যাটসম্যানকে হারায় বরিশাল। ১৭তম ওভারে ব্রাভোর বলে ফেরেন এনামুল হক (৩)। সাঞ্জামুলের দুর্দান্ত ক্যাচে বিদায় নেন তিনি। দলীয় ৯৮ রানের মাথায় ছয় উইকেট হারায় বরিশাল। শেষ দিকে ব্যাট চালিয়ে থিসারা পেরেরা ১৫ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন। আরেক অপরাজিত ব্যাটসম্যান রুম্মন রইস ১৩ বলে ২৫ রান করে মাঠ ছাড়েন।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ