,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

রাজ কালামের জন্মদিন আজ

লাইক এবং শেয়ার করুন

এম নজরুল ইসলাম, বগুড়া:
বর্তমান সময়ের উদিয়মান তরুণ, নন্দিত, তরুন-তরুনীদের প্রিয় কবি, লেখক ও সাহিত্যিক প্রভাষক আবুল কালাম আজাদ (রাজ কালাম) এর ৩৪তম জন্মদিন আজ। ১৯৮২ সালের ১১ আগস্ট বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলার রণবাঘা গ্রামের মধ্যবিত্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন সাহিত্যিক রাজ কালাম। পিতা লুৎফর রহমান ও মাতা মোছা. পারুল বেগমের চার সন্তানের মধ্যে তিনিই প্রথম সন্তান। ছোট তিন বোন জেসমিন, জলি ও রিংকি। রাজ কালামের সংসার জীবনে সহধর্মিনী ফাহমিদা রানু ও বেঁচে থাকার অবলম্বন একমাত্র নয়নের মনি কন্যা নাবিলাহ্।

জন্মস্থান এলাকার রণবাঘা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৯৮ সালে এসএসসি, বগুড়া সরকারি আযিযুল হক কলেজ থেকে ২০০১ সালে এইচএসসি পাশ করেন এবং ২০০৮সালে বিএ অনার্স, এমএ (ইংরেজী) উত্তীর্ণ হন তিনি। এছাড়া ২০০৩ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধিনে, সিইএলসি কমিউনিকেটিভ English Language কোর্স করেন। শিক্ষা ও সাহিত্য বিষয়ে ২০১৫ সালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম স্বর্ণপদক অর্জন করেন রাজ কালাম। খোজ নিয়ে জানা যায়, ২০০২ সাল থেকেই দৈনিক ও সাপ্তাহিক পত্রিকায় লিখুনির মধ্যদিয়ে তার কবিতা ও সাহিত্য রচনা শুরু করে। প্রথমে দৈনিক মুক্ততথ্য ও দৈনিক আজকের জিবন নামের পত্রিকায় দিয়েই সূচনা। প্রিয় লেখকের তালিকায় আছেন অনেকেই। তবে তরুন সাহিত্যিক রাজ কালাম খুব সীমিত সময়ের মধ্যেই খ্যাতিমান সাহিত্যিকদের সান্নিধ্য লাভ করেছেন। মেধা ও শ্রমের মাধ্যমে দেশ বিদেশের মানুষের মনে আলাদা একটি জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন তিনি।

 

 

তিনি সাংবাদিকতার পাশাপাশি নিয়মিত লিখছেন জাতীয় দৈনিক, সাপ্তাহিক, মাসিক, ছোটকাগজ, অনলাইনে। তার প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ৩টি। বইগুলো- পড়ন্ত বিকেলে, অধরা স্বপ্ন, YOU MAY SPEAK ENGLISH । যা দেশব্যাপি আলোড়ন সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে। গোধুলি লগ্নে, আমি তুমি-তুমি আমি,  MONEY IS THE SYNONYM OF THE WORLD  প্রকাশের অপেক্ষায়। যতটুকুু সাফল্য পাওয়া দরকার তার চেয়ে একশ গুন বেশি পেয়েছেন। সেই সাফল্যের ধারাবাহিকতায় প্রকাশিত হতে চলেছে আরও কয়েকটি বই।  সাহিত্যিক রাজ কালাম একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজী লেকচারার, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষক ও প্রশ্ন প্রণেতা। দৈনিক কালের ছবির ক্রিড়া ও সাংকৃতিবিষয়ক প্রতিনিধি, সাব-এডিটর, করাপশন নিউজ এজেন্সি, বাংলাদেশ প্রেসক্লাব সদস্য ও এইচএমনিউজ২৪ডটকম এর কূটনীতিবিষয়ক প্রতিনিধি হিসেবে দ্বায়িত্বে রয়েছেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও অরাজনীতিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত।

 

 

কবি ও সাহিত্যিক প্রভাষক আবুল কালাম আজাদ (রাজ কালাম) একান্ত আলাপারিতায় এপ্রতিবেদককে বলেন, তার পছন্দের রং কালো, সাদা, নীল ও সবুজ। ফুলের মধ্যে বেশি ভালোলাগে গোলাপ ফুল। খেতে পছন্দ করেন ভাত, মাছ, মাংস ও ডাল। বিশেষ করে নিজের হাতে রান্না করা আলু ভর্তা দিয়ে ভাত। তার প্রিয় ব্যক্তিত ¡: হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ)। প্রিয় পেশা : শিক্ষকতা ও সাংবাদিকতা। ক্রিকেট ও ফুটবল তার প্রিয় খেলা। তিনি বলেন, যখন মানুষের জন্য কিছু করতে পারি, সেটাই আমার ভালো লাগা। অবসর সময়ে লেখক বন্ধুদের সাথে আড্ডা ও পথশিশুদের সাথে সময় কাটাতে পছন্দ করেন তিনি। তবে একা থাকতে ও মানুষের জন্য ভালো কিছু ভাবতে বেশি পছন্দ করেন। জন্মদিন সম্পর্কে রাজ কালাম বলেন, আমার জন্মদিনের প্রতিটি মুহুর্ত পথশিশুদের সাথে থাকার চেষ্টা করবো। কিছুক্ষনের জন্য হলেও শিশুরা যেন তাদের পথশিশুত্ব ভুলে থাকে। পাশাপাশি পরিচিতজন, আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধুদের সাথেও আড্ডা দেব। তিনি বলেন, জন্মদিন, বিশেষ কোন দিন নয়, অন্য সব দিনের মতোই এটাও একটি দিন। তবে সবার ভালোবাসায় জন্মদিনটি একটি বিশেষ দিনে পরিণত হয়ে ওঠে। সবার অফুরন্ত ভালোবাসার কারণে এই দিনটিতে নিজের মনের মধ্যে এক বিশেষ ভালো লাগার অনূভতি কাজ করে।

 

 

 


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ