,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

শিক্ষাগত যোগ্যতার ডিগ্রি সংক্রান্ত নথি নিয়ে বিড়ম্বনায় স্মৃতি ইরানি

লাইক এবং শেয়ার করুন

ভারতের কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী স্মৃতি ইরানির শিক্ষাগত যোগ্যতার ডিগ্রি নিয়ে বিবাদ এবার নয়া মোড় নিয়েছে। শুক্রবার দিল্লির একটি আদালতের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশন এবং দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়কে স্মৃতি  ইরানির ডিগ্রি সংক্রান্ত সমস্ত নথি জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আদালতের এই নির্দেশের ফলে স্মৃতি ইরানি বিড়ম্বনায় পড়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে আহমেদ খান নামে এক সাংবাদিক জনস্বার্থ মামলা করে অভিযোগ করেন নির্বাচন কমিশনে স্মৃতি ইরানি সত্য গোপন করে ভুল তথ্য দিয়েছেন। অভিযোগে বলা হয়, স্মৃতি ইরানি লোকসভা ও রাজ্যসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় নির্বাচন কমিশনের কাছে তিনটি হলফনামা পেশ করেন। এ সব হলফনামায় আলাদা আলাদা শিক্ষাগত যোগ্যতা দেখিয়েছিলেন।

 

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০০৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে লড়তে গিয়ে তিনি হলফনামায় বলেন, ১৯৯৬ সালে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের করেসপন্ডেন্স কোর্সে স্নাতক (বিএ) পাস করেছেন। যদিও ২০১১ সালে সাত বছর পর তিনি যখন গুজরাট থেকে রাজ্যসভা নির্বাচনে প্রার্থী হন, সে সময় হলফনামায় জানান, তিনি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের করেসপন্ডেন্স কোর্সে বি কম প্রথম বর্ষ পর্যন্ত পড়েছেন। পরবর্তীতে বছর তিনেক বাদে ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের সময় স্মৃতি ইরানি হলফনামায় জানান, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব ওপেন লার্নিং থেকে বাণিজ্য বিভাগে বি কম পার্ট ওয়ান পাস করেছেন।

 

অভিযোগকারীর দাবি, স্মৃতি ইরানির এ সব হলফনামায় নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে ভুল এবং ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দেওয়া হয়েছে। দিল্লি মেট্রোপলিটান আদলতের ম্যাজিস্ট্রেট আকাশ জৈন আবেদনকারীর আবেদন গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন এবং দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়কে স্মৃতি ইরানির ডিগ্রি সংক্রান্ত সমস্ত নথি জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। আদালতে আবেদনকারী অবশ্য স্মৃতি ইরানির স্কুল ফাইনাল এবং সিনিয়র সেকেন্ডারির মার্কশিট আনার দাবি জানালেও এই মামলার সঙ্গে সম্পর্কিত নয় বলে ম্যাজিস্ট্রেট তা খারিজ করে দেন। দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাওয়া নথির সঙ্গে নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা হলফনামার মিল না হলে আইনিভাবে ফেঁসে যেতে পারেন স্মৃতি। সেক্ষেত্রে জেল জরিমানার আশঙ্কা সহ মন্ত্রিত্ব হারানো এমনকি তার রাজনৈতিক ক্যারিয়ারও অনিশ্চিত হয়ে পড়তে পারে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ