,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

মার্কিন জঙ্গি তালিকায় ৩০০ শরণার্থী

লাইক এবং শেয়ার করুন

মার্কিন আইনমন্ত্রী জেফ সেশনস জানিয়েছেন, দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এফবিআই-এর তালিকায় ৩০০ শরণার্থীর নাম রয়েছে। সোমবার সাত মুসলিম-প্রধান দেশের নাগরিকদের ওপর স্থগিত হয়ে যাওয়া নিষেধাজ্ঞা সংশোধন করে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নতুন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন। নতুন নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার জন্য হোয়াইট হাউসে আয়োজিত এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে জেফ সেশনস এসব কথা জানান।

সেশনস বলেন, ‘৯/১১ (টুইন টাওয়ার) হামলার পর থেকে যেসব মানুষকে জঙ্গিবাদের জন্য আদালতে তোলা হয়েছে, তাদের বেশিরভাগই বিদেশ থেকে আসা। আমরা আরও জানি জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ বা হামলা চালাতে পারে এমন অনেকেই আমাদের শরণার্থী কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে দেশে ঢোকার চেষ্টা করবে।’ তিনি এফবিআই-এর বরাত দিয়ে শরণার্থীদের জঙ্গিবাদে জড়িত থাকার কথা উল্লেখ করে নতুন ‘মুসলিম নিষেধাজ্ঞা’র পক্ষে যুক্তি দেন। ‘এফবিআই-এর তথ্য অনুযায়ী, ৩০০ জনেরও বেশি শরণার্থীর বিরুদ্ধে জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।’

সেশনস আরও বলেন, ‘কে দেশে প্রবেশ করছে, তারা কোনও অনিষ্ট করবে কিনা, অন্যান্য দেশের মতোই যুক্তরাষ্ট্রেরও তা নিয়ন্ত্রণের অধিকার রয়েছে।’ সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন জানান, ইরাকে স্ক্রিনিং কার্যক্রম জোরদার করার জন্যই দেশটিকে এবারের নিষেধাজ্ঞার অন্তর্ভূক্ত করা হয়নি। উল্লেখ্য, নতুন জারি করা নিষেধাজ্ঞায় আগের তালিকায় থাকা ইরাককে বাদ দেওয়া হয়েছে। তবে আগের নিষেধাজ্ঞায় থাকা অপর ছয়টি দেশের নাগরিকদের জন্য নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখা হয়েছে। ওই সংবাদ সম্মেলন থেকেই ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করার কথা ঘোষণা দেওয়া হয়। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন মার্কিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেলি।

ট্রাম্পের জারি করা নতুন এ নিষেধাজ্ঞায় বলা হয়েছে, ইরান, লিবিয়া, সোমালিয়া, সুদান, সিরিয়া ও ইয়েমেনের যেসব নাগরিকদের ‘বৈধ ভিসা নেই’, তারা আগামী ৯০ দিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, এ নিষেধাজ্ঞাকে ‘মুসলিম নিষেধাজ্ঞা’ বলা যাবে না। কারণ এ নিষেধাজ্ঞার ফলে অন্য দেশগুলোর মুসলিম নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে কোনও বাধার মুখে পড়তে হবে না। তবে এই নিষেধাজ্ঞা আগের মতোই স্বাক্ষরের পর থেকেই কার্যকর হচ্ছে না। ১৬ মার্চ থেকে নিষেধাজ্ঞাটি কার্যকর হবে।

প্রসঙ্গত, ক্ষমতা গ্রহণের পরই ২৭ জানুয়ারি এক নির্বাহী আদেশে সাত মুসলিম-প্রধান দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র সফরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরে সিয়াটলের একজন বিচারক ট্রাম্পের ওই নিষেধাজ্ঞা স্থগিতের আদেশ দেন। ট্রাম্প প্রশাসন ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করলেও সান-ফ্রান্সিসকোভিত্তিক তিন বিচারকের প্যানেল তা খারিজ করেন।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ