,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

পিছিয়ে থাকা ডোনাল্ড ট্রাম্প অপ্রত্যাশিতভাবে এগিয়ে

লাইক এবং শেয়ার করুন

এই প্রথম জনমত যাচাইয়ে এগিয়ে গেলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবিসি নিউজ ও ওয়াশিংটন পোস্টের জনমত জরিপে ট্রাম্প হিলারির চাইতে ১ পয়েন্ট এগিয়ে গেছে। অক্টোবরের ২৯ তারিখ থেকে ৩১ অক্টোবরের পর্যন্ত এই জরিপ চালানো হয়। তাতে দেখা যায় ট্রাম্পের পয়েন্ট ৪৬, হিলারির পয়েন্ট ৪৫। অথচ একই সংস্থার জরিপে এর আগে এক পয়েন্ট এগিয়ে ছিলেন হিলারি ক্লিনটন। খবর ওয়াশিংটন পোস্ট।

গত কয়েক মাস পিছিয়ে থাকা রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ভোটের ঠিক এক সপ্তাহ আগে জনমত জরিপে হিলারি ক্লিনটনের চেয়ে এক পয়েন্ট এগিয়ে রয়েছেন। তার এই এগিয়ে যাওয়াকে অনেকেই অপ্রত্যাশিত বলে মনে করছেন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ই- মেইল কেলেংকারি নিয়ে এফবিআই প্রধান জেমস কমির নতুন করে তদন্ত করার ঘোষণা বেকায়দায় ফেলেছে হিলারিকে।

এবিসি নিউজ/ওয়াশিংটন পোস্টের এই জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৪৬ শতাংশ ভোটার ট্রাম্পের পক্ষে সমর্থন জানিয়েছেন, যেখানে হিলারির পক্ষে সমর্থন এসেছে ৪৫ শতাংশের। লিবারেটেরিয়ান প্রার্থী গ‌্যারি জনসনের পক্ষে ৩ শতাংশ এবং গ্রিন পার্টির জিল স্টেইনের পক্ষে ২ শতাংশ ভোটার রায় দিয়েছেন। হিলারি ক্লিনটনের ই-মেইল কাণ্ড নিয়ে এফবিআইয়ের নতুন করে তদন্ত শুরুর ঘোষণার পর যেসব জরিপ হয়েছে এটা সেগুলোর একটি।

তবে ইলেক্ট্রোরাল ভোটে হিলারি এগিয়ে রয়েছেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে গেলে ২৭০টি ইলেক্ট্রোরাল ভোটের প্রয়োজন। প্রয়োজনীয় ইলেক্ট্রোরাল ভোটের সম্মতি তিনি পেয়েছেন বলে খবরে জানানো্ হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে নিউইয়র্কের বাড়ি থেকে নিজের ব্যক্তিগত সার্ভার ব্যবহার করে রাষ্ট্রীয় ই-মেইল চালাচালি করেছিলেন হিলারি। যার পরিপ্রেক্ষিতে হিলারির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষায় ব্যর্থতার অভিযোগ ওঠে এবং গত এক বছর ধরে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এফবিআই।

এ বছর জুলাইয়ে এফবিআই হিলারির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রমাণ করে। ওই সময় এফবিআই এর পরিচালক জেমস কমি বলেন, রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য চালাচালিতে ব্যক্তিগত সার্ভার ব্যবহার করে হিলারি নিয়ম লঙ্ঘন করেছেন। তবে এজন্য হিলারির বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ দায়ের করা হবে না বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। শুক্রবার জেমস কমি দেশটির কংগ্রেসের জ্যেষ্ঠ আইনপ্রণেতাদের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে হিলারির ই- মেইলকাণ্ড নিয়ে নতুন করে তদন্তের কথা জানান। এরপর হিলারির জনপ্রিয়তা কমতে শুরু করে বলে প্রায় সবগুলো জনমত জরিপে উঠে আসে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ