,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলা: অধিকতর তদন্তে খালেদার আবেদন খারিজ

লাইক এবং শেয়ার করুন

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিচারকের প্রতি অনাস্থার আবেদন গ্রহণের পর দিন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আবেদন খারিজ করে দিয়েছে উচ্চ আদালত। ‘ফান্ডটিতে টাকা সৌদি আরব, না কুয়েত থেকে এসেছে’ সেই অংশটুকুর পুনঃতদন্ত চেয়ে এই আবেদন করেছিলেন বিএনপি নেত্রী। কিন্তু সেটা খারিজ হয়ে যাওয়ায় বিচারিক আদালতে এই মামলার শুনানি চলতে আর কোনো বাধা নেই। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেয়।

আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আব্দুর রেজাক খান। সঙ্গে ছিলেন জাকির হোসেন ভূঁইয়া। মামলার বাদী দুর্নীতি দমন কমিশনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। হাইকোর্টের রায়ের বিষয়ে দুদকের আইনজীবী বলেন, ‘জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে একটি অংশ পুনঃতদন্ত চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল। সেই আবেদন সরাসরি খারিজ করে দিয়েছেন আদালত। তাদের পক্ষ থেকে কিছু পর্যবেক্ষণ চাওয়া হয়েছিল। সে বিষয়েও কোনো পর্যবেক্ষণ দেননি আদালত।’

খালেদা জিয়ার আইনজীবী জাকির হোসেন ভূইয়া বলেন, ‘খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগে মামলাটি করা হয়েছে। মামলার কোথাও নেই খালেদা জিয়া দুই কোটি ১০ লাখ টাকার একটি টাকাও নিয়েছেন। সাক্ষীরাও এরকম কথা বলেনি।’ আসামিপক্ষের মামলায় পুনঃতদন্ত চাওয়ার কোনো নজির আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এরকম মিথ্যা মামলা এই পৃথিবীতে এই একটিই হয়েছে। তবে পুনঃতদন্তে আদেশ দেওয়ার ক্ষমতা হাইকোর্টের আছে।’ তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রায়ই বলেন, খালেদা জিয়া অর্থ চুরি করেছেন। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি এই মামলার এজহারটি পড়তেন তাহলে অর্থ চুরির কথাটি আর বলতেন না।’

মামলার বিবরণীতে জানা যায়, ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা দায়ের করে দুদক। এতিমদের সহায়তা করার উদ্দেশ্যে একটি বিদেশি ব্যাংক থেকে আসা দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ এনে এ মামলা করা হয়।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ