,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

স্ত্রীর গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন

লাইক এবং শেয়ার করুন

জেলা প্রতিনিধি (পটুয়াখালী) : পটুয়াখালীর বাউফলে নেশার টাকা না দেয়ায় স্ত্রীর গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেছে এক পাষন্ড স্বামী। এতে তার মাথা ও মুখের একাংশ ছাড়া শরীরের সব পুড়ে গেছে। তিনি আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটে আইসিউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

কাছিপাড়া ইউনিয়নের অমরখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।এ ঘটনায় আজ (২০এপ্রিল) বৃহস্পতিবার আয়শার বাবা আবু বক্কর শিকদার বাদি হয়ে তার স্বামীসহ ৫ জনকে আসামী করে বাউফল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।
জানা গেছে, আট বছর আগে উপজেলার কাছিপাড়া ইউনিয়নের অমরখালী গ্রামের আবু বক্কর সিকদারের মেয়ে আয়শার সঙ্গে একই ইউনিয়নের উত্তর পাকডাল গ্রামের হামজু আকনের ছেলে মামুন আকনের বিয়ে হয়।

বিয়ের দুই-তিন বছর তাঁদের সংসার জীবন ভালোই চলছিল। তাঁদের চার বছর ও দুই বছরের দুটি শিশু সন্তান আছে। এরপর মামুন মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন। এর পরেই নেমে আসে তাদের সংসারে অশান্তি। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকতো তাদের । নিয়মিত চলত স্ত্রীর উপর শাররিক ও মানসিক নির্যাতন।

আয়শার বাবা আবু বক্কর সিকদার বলেন, জামাতা মামনু নেশার টাকার জন্য আমার মেয়েকে প্রায়ই মারধর করত। সর্বশেষ ১১ এপ্রিল সকালে মামুন আয়শাকে আমার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা এনে দিতে বলে। এতে আয়শা অপরগতা প্রকাশ করলে ক্ষিপ্ত হয়ে মামুন তাকে বেদম মারধর করে। একই দিন রাত ৮টার দিকে মামুন পুনরায় নেশার টাকার জন্য আয়শাকে মারধর করে।

একপর্যায়ে আয়শা অজ্ঞান হয়ে পরলে মামুন তার শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করে। আয়শার ডাক-চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এসে তাঁকে উদ্ধার করেন। ততক্ষনে আয়শার মাথা ও মুখের এক পাশ ছাড়া শরীরের সব অংশ পুড়ে যায়। পরে আগুনে দ্বগ্ধ আয়শাকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সেখান থেকে ওই রাতেই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে নেয়া হয়। আয়শা বতমানে মৃত্যুর সাথে লড়াই করছেন।

বাউফল থানার ওসি আযম খান ফারুকী বলেন,‘বিষয়টি নির্মম ও অমানবিক। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার আয়শার বাবা আবু বক্কর সিকদার বাদি হয়ে জামাতা মামুনকে প্রধান আসামি করে পাঁচজনের বিরুদ্ধে বাউফল থানায় একটি মামলা করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ