,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

তনু হত্যা: ময়নাতদন্তকারী টিমের প্রধান ডাক্তারকে উড়ো চিঠি

লাইক এবং শেয়ার করুন

সোহাগী জাহান তনুর দ্বিতীয় ময়নাতদন্তকারী বোর্ডের প্রধান ডা. কামদা প্রসাদ সাহাকে উড়োচিঠিতে সপরিবারে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার দুুপুর ২টার দিকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. কামদা প্রসাদ সাহা তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি জানান, মঙ্গলবার সকালে তিনি অফিসে আসার পর ডাকযোগে পাঠানো হাতে লেখা দুই পৃষ্ঠার চিঠিটি হাতে পান। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ডা. কামদা প্রসাদ সাহা, আপনি তনু হত্যা মামলা নিয়ে ধূম্রজাল সৃষ্টি করছেন, যা আপনার জন্য ভয়াবহ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। সহজ মামলাটিকে পেঁচিয়ে পেঁচিয়ে জটিল করার চেষ্টা করবেন না।

চিঠিতে লেখা হয়েছে, তনুর মা তার বক্তব্যে বলেছেন- ‘সার্জেন্ট জাহিদ ও সিপাহি জাহিদ তনুকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে গেছে। তাদের গ্রেপ্তার না করে তালবাহানা করবেন না। সরকারের আজ্ঞাবহ হয়ে কাজ করবেন না। চিঠির এক স্থানে লেখা হয়, সেনাবাহিনীর সদস্যদের এ মামলায় জড়ানো হলে কি হাসিনার সিংহাসন নড়বড়ে হয়ে যাবে, তাই না? আপিন কি চান আপনার পরিবার ও ছেলে-মেয়ে ধ্বংস হয়ে যাক? এক ব্যক্তিবিশেষের পক্ষপাতিত্ব হয়ে নিজের জীবনকে কেন ধ্বংস করছেন?’

তিনি চিঠির বিষয়ে সিআইডি ও পুলিশ সুপারকে ফোনে জানিয়েছেন বলে জানান। তারা তাকে জিডি করার কথা বলেছেন। তিনি কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় জিডি করবেন বলে জানিয়েছেন। হুমকির প্রতিক্রিয়ায় ডা. কামদা প্রসাদ সাহা জানান, হুমকিতে যে কোনো মানুষই বিচলিত হয়। তবে আমি নিয়মের মধ্যে আছি। তাই আমি ভীত নই।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে মেডিকেল বোর্ড দ্বিতীয় ময়নাতদন্তের বিষয়ে সভা করেছেন বলে জানিয়েছেন ডা. কামদা প্রসাদ সাহা। বোর্ডে সিদ্ধান্ত হয়েছে, মেডিকেল কলেজ প্রিন্সিপাল ও আইনজীবীদের সঙ্গে পরামর্শ করে ডিএনএ রিপোর্টের জন্য আদালতে আবেদন জানানো হবে। ডিএনএ রিপোর্ট পাওয়া সাপেক্ষে দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন দেওয়া হবে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি কুমিল্লার পরিদর্শক গাজী মো. ইব্রাহিম বলেন, ডা. কামদা প্রসাদ সাহাকে হুমকি দেওয়ার বিষয়ে আমি কিছু জানি না। আমাকে কেউ কিছু জানায়নি। উল্লেখ্য, গত ২০ মার্চ তনুর মরদেহ কুমিল্লা সেনানিবাসের অভ্যন্তরে তার বাসার পাশে একটি জঙ্গলের ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয়।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ