,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

ঝিনাইদহে পৃথক সড়ক দুর্ঘটায় নিহত ১ আহত ৩৩ !

লাইক এবং শেয়ার করুন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহে পৃথক সড়ক দুর্ঘনায় এক ট্রাক ড্রাইভার নিহত ও ৩৩ জন আহত হয়েছেন। নিহত ড্রাইভারের পরিচয় মেলেনি। রোববার বিকালে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার খড়িখালী আমতলা ও সকালে শহরের মারকাজ মসজিদ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায় রোববার দুপুরে বিআরটিসি বাসের সাথে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাসের চালক ওসুপারভাইজারসহ অন্তত ৩০ যাত্রী আহত হন। আহতদের মধ্যে ২০ জনকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তাদের মধ্যে বাসের সুপার ভাইজার মাগুরার বেরইল গ্রামের লাবলু গাজীর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। বাকিদেরকে ঝিনাইদহ সদও হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

আহতরা হলেন, ঝিনাইদহ শহরের বড় কামারকুন্ডু গ্রামের জমারত আলীর ছেলে আবু তালেব (৪৫), চাকলাপাড়ার কালিপদ ঘোষের ছেলে বিষ্ণুপদ ঘোষ (৪৫), ঠাকুরগাঁও শহরের জলিল উদ্দিন (৪০) এবং তার স্ত্রী এলিনা (৩৫) ও মেয়ে জয়তি (০৬), মগুরা জেলার বেরুইল গ্রামের সোরাব হোসেনের ছেলে বিআরটিসি বাসের হেল্ফার লাবু হোসেন (৩৫), বগুড়া জেলার মহেশপুর গ্রামের আমজাদ আলীর ছেলে বিআরটিসি বাসের ড্রাইভার নাজমুল হোসেন (৩৫), রংপুর শহরের রাসেল আহমেদ (৩০), গাইবান্ধার পলাশবাড়ী গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে শফিউর রহমান (৩০), বগুড়ার লতিফপুর গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে খোরশেদ আলী (৩০), সাতক্ষীরা উপজেলার জামালনগর গ্রামের মাজাহারুল ইসলামের ছেলে বাদশা মিয়া (৩০), নাটোরের গোয়ালবান্দা গ্রামের চয়নুদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম (৩৫), কালীগঞ্জ উপজেলার মাঠপাড়ার চাচড়া গ্রামের রহমান আলীর ছেলে শুকুর আলী (৬০), কুড়িগ্রাম জেলার চাপড়াডাঙ্গা গ্রামের মাসুদ রানার স্ত্রী আনোয়ারা (২৫) একই জেলার চতালক গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে সাইদুর রহমান (২৫), মেহেরপুর জেলার দাড়িয়াপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে রবিউল ইসলাম (৩০), রংপুর জেলার জয়রামপুর গ্রামের ইফাত আলীর মেয়ে তাসলিমা খাতুনসহ (২০) ২০ জন।

ঝিনাইদহ দমকল বাহিনীর ষ্টেশন মাষ্টার দিলিপ কুমার সরকার জানান, কুড়িগ্রামের উদ্দেশ্যে সাতক্ষীরা থেকে ছেড়ে আসা বিআরটিসির একটি বাস ঝিনাইদহ শহরের মারকাজ মসজিদ এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে বাসটির সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে রাস্তার পাশে একটি বিদ্যুুতের খুটিতে আটকে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয় দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদেরকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আহতদের অধিকাংশের বাড়ী উত্তরবঙ্গে বলে পুলিশ জানায়। রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়া মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি তরকারি বোঝায় ট্রাকের ড্রাইভার। ঝিনাইদহ দমকল বাহিনীর স্টেশন অফিসার দিলিপ কুমার সাংবাদিককে জানান, বিকাল পৌনে ৫টার দিকে আমরা ট্রাকের মধ্য থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করি।

ঝিনাইদহ শহরের আরাপপুর-পবহাটী কলারহাট এলাকায় বিআরটিসি বাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

এদিকে ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেন্দ্রনাথ সরকার ও এসআই কবির সাংবাদিক জাহিদুর রহমান তারিককে কে জানান, দুপুরে সাতক্ষীরা থেকে ছেড়ে আসা চিলমারী কুড়িগ্রামগামী বিআরটিসির একটি বাস ঝিনাইদহ শহরের আরাপপুর-পবহাটী রাস্তায় কলারহাটে এলে বিপরীতমুখী একটি ট্রাকের সঙ্গে সংর্ঘষ হয়। এতে ২০ জন আহত হয়।

খবর পেয়ে ঝিনাইদহের ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরবর্তিতে ঝিনাইদহ সদও থানার এসআই কবির ও ঝিনাইদহের র‌্যাব-৬ এর টহল টিম উপস্থিত হয়।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বিআরটিসি বাসের হেল্ফার লাবু হোসেন সহ তিন জনের অবস্থা অত্যান্ত গুরুতর বলে সাংবাদিককে জানিয়েছেন।

এদিকে রোববার বিকালে ঝিনাইদহ যশোর সড়কের খড়িখালী আমতলা নাম স্থানে একটি তরকারি বোঝাই ও বিপরীত দিক থেকে আসা গমবাহি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে অজ্ঞাত ১ জন নিহত ও তিনজন আহত হন।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ