,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

সিলেট মাদকের নীল ছোঁয়া

লাইক এবং শেয়ার করুন

সিলেট ব্যুরো : যে নেশার দ্রব্য গ্রহন করার ফলে ব্যক্তির শারিরীক ও মানসিক একটা পরিবর্তন ঘটে এবং ব্যক্তির ঐ দ্রব্যের প্রতি ধীরে ধীরে বেশিমাত্রায় নেশা হওয়া ,যা তার সামাজিক ও দৈনন্দিন কার্যাবলিতৈ প্রভাব রাখে এটাই নেশাদ্রব্য বা মাদকদ্রব্য মাদকের নীল ছোঁয়া কেড়ে নিচ্ছে সিলেটর শত মানুষের তাজা প্রাণ। সিলেট মাদক দ্রব্যের ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে । এর আগে সাধারণত গাঁজা, আফিন ও মদের ভেতর নেশাকারীরা সীমাবদ্ধ ছিল। আশির দশেকের শুরুর দিক থেকে এ জেলায় ব্যবহৃত হতে থাকে ফেনসিডিল, গাঁজা, হেরোইন, নেশা ট্যাবলেট এর সাথে সংযুক্ত হতে থাকে। এখন মাদকের তালিকাভুক্ত সব কিছুই সিলেট জেলায় পাওয়া যাচ্ছে। শুধু শহর নয়, প্রত্যন্ত এলাকাতেও ছড়িয়ে গেছে মাদকের নীল নেশা। কিশোর, তরুণ, যুবক, বৃদ্ধ অর্থাৎ বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ এসব মাদকদ্রব্য পরিবহণ, বিক্রি এবং সেবনের সাথে সম্পৃক্ত।
সিলেট জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা অত্যন্ত উন্নত। রেল সড়ক ও নৌপথে সিলেট জেলা থেকে দেশের সর্বত্র যাতায়াত করা যায়। সড়ক পথে চাঁদপুরের পূর্বে পার্শ্ববর্তী জেলা হচ্ছে কুমিল্লা, দক্ষিনে নোয়াখালী, পশ্চিমে শরীয়তপুর ও উত্তরে সিটি শহর। এই মাদকগুলো মূলত কুমিল্লা সীমান্তবর্তী একটি ভারতীয় এলাকা দিয়ে পাচার হয়ে আসছে সরাসরি চাঁদপুর জেলার প্রান কেন্দ্র হাজীগঞ্জে। বর্ডার সীমান্ত দিয়ে প্রতিদিন প্রচুর পরিমাণ অবৈধ পণ্যের পাশাপাশি মাদকদ্রব্য পাচারের ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহার করা হয়। বিশেষ করে রাজধানী ঢাকা, বন্দরনগরী নারায়নগঞ্জ, খুলনা, মুন্সীগঞ্জ, বরিশাল, ভোলা, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, পটুয়াখালী, মাদারীপুর,ফরিদপুর, শরিয়তপুর, চাঁদপুরের উপর দিয়ে নদীপথে মাদকদ্রব্য পরিবহণ করা হয়।

উল্লেখ্য, মাদকের ব্যপারে সিলেট র‌্যাব-৯ উপ-পরিচালক এস এ এম ফখরুল ইসলাম খান সাথে কথা বললে তিনি জানান , মাদক বিরোধী অভিযানে জেলা সর্বস্তরের জনগনের সহযোগীতা ও সহায়তা কামনা করছি। সিলেট জেলায় র‌্যাব-৯ অভিযানে এখন পর্যন্ত  বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য সহ আটক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, মাদকের ব্যপারে সিলেট এয়ারপোর্ট থানার ওসি গৌছুল হোসেন সাথে কথা বললে তিনি জানান,সিলেট থানা পুলিশ ও র্উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একের পর এক মাদক সেবনকারী, ক্রেতা-বিক্রেতা, পেছনে লাগামহীন লেগে আছেন।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ