সিলেট বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্টিত

২৯ বার পঠিত

সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন বলেছেন, অবৈধ আওয়ামী বাকশালী সরকার বিপ্লবকে ভয় পায়, সংহতিকেও ভয় পায়। তাই তারা রাজধানী থেকে শুরু করে সারাদেশে ৭ই নভেম্বরের জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবসের অনুষ্ঠানে বাধা দিয়েছে। ঘৃনিত একদলীয় শাসনে বিশ্বাসী তাবেদার সরকার গনতন্ত্রকে গলাটিপে হত্যা করে সর্বত্র স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় লিপ্ত রয়েছে। বন্দুকের নলের জোরে ক্ষমতা আটকে রাখার মাধ্যমে তারা রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যাবহার করে প্রতিনিয়ত মানুষের গনতান্ত্রিক মৌলিক অধিকার হরন করে চলেছে। দেশের গণমানুষের প্রিয় সর্ববৃহৎ গনতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল বিএনপির শান্তিপুর্ন সভা-সমাবেশে বাধা প্রদানের মাধ্যমে তারা তাদের গণবিচ্ছিন্নতার মুখোশ জাতির নিকট উন্মোচিত করেছে। মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের আদর্শে গড়া বিএনপির সাথে জনগণের সম্পৃক্ততা দেখে ঈর্ষান্বিত হয়েই সরকার সকল সভা-সমাবেশে বাধা দিচ্ছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও দেশনায়ক তারেক রহমানের নেতৃত্বে সরকারের সকল জুলুম নিপীড়ন উপেক্ষা করে শহীদ জিয়ার সৈনিকরা রাজপথে ছিল, আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।
তিনি সোমবার দেশব্যাপী কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসুচীর অংশ হিসেবে বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও পল্টনে শান্তিপুর্ন সমাবেশ করতে না দেয়ার প্রতিবাদে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আলী আহমদের পরিচালনায় নগরীর ঐতিহাসিক রেজিষ্ঠারী মাঠে অনুষ্ঠিত সমাবেশের শুরুতে কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন বিএনপি নেতা ডা. আশরাফ আলী।

বিপুল সংখ্যক দলীয় নেতাকর্মীর উপস্থিতির মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা দলের আহবায়ক সালেহ আহমদ খসরু, মহানগর বিএনপি নেতা এমদাদ হোসেন চৌধুরী, মাহবুব চৌধুরী, বিএনপি নেতা আফরোজ মিয়া সাবেক চেয়ারম্যান, জালাল উদ্দিন চেয়ারম্যান, হুমায়ুন আহমদ মাসুক, শ্রমিক দলের কেন্দ্রীয় নেতা সুরমান আলী, বিএনপি নেতা মুফতী বদরুন-নুর সায়েক, মুফতী নেহাল উদ্দিন, আব্দুল জব্বার তুতু, সৈয়দ রেজাউল করিম আলো, লিলু মিয়া চেয়ারম্যান, আবুল কাশেম, শামীম আহমদ, মুকুল মোর্শেদ, এম.এ রহিম, শ্রমিক দল নেতা ইউনুছ মিয়া, বিএনপি নেতা আজির উদ্দীন চেয়ারম্যান, সিরাজুল ইসলাম, নিজাম উদ্দীন জায়গীরদার, এডভোকেট মুজিবুর রহমান, আফজাল উদ্দীন, লল্লিক আহমদ চৌধুরী, ইলিয়াস মেম্বার, হাবিব আহমদ চৌধুরী শিলু, সরফরাজ খান, আব্দুল কাহির, মোস্তাক আহমদ, আমিনুর রশীদ খোকন, মোতাহির আলী মাখন, শফিকুর রহমান টুটুল, জিয়াউর রহিম দীপন, আব্দুস সামাদ তোহেল, শেখ কবির, ফাহিম আহমদ, আমিনুর রহমান খোকন, মামুনুর রহমান, জেবুল হোসেন, লায়েছ আহমদ, মির্জা বেলায়েত হোসেন লিটন, সেলিম খান জালালাবাদী, জাকির মজুমদার, নজির হোসেন, মৌলভী জিল্লুর রহমান, শেখ মো: ইলিয়াস আলী, আলী হোসেন মুক্তার, আতাউর রহমান কাছা মিয়া, ছাত্রদল নেতা ফখরুল ইসলাম, কাজী মেরাজ, দেওয়ান আরাফাত চৌধুরী জাকির, মুরাদ হোসেন, নজরুল ইসলাম, জেহিন আহমদ, জুবের আহমদ আমিরী, মুজাহিদুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, আব্দুল লতিফ খান, আইয়ুব আলী সজিব, শাহ মাহমুদ আলী, আব্দুল ওয়াহিদ, জিলা মিয়া, আব্দুর রহিম, আল মামুন খান, মকবুল আলী, জমির মেম্বার, বদরুল ইসলাম আজাদ, এডভোকেট আল আসলাম মুমিন, এডভোকেট ফখরুল হক, আশরাফ বাহার, মখলিছুর রহমান, আব্দুস শুকুর, এম.এ মান্নান, নাজমুল ইসলাম, মঈনুল ইসলাম মঞ্জু, মকসুদুল করিম নোহেল, আব্দুল মুক্তাদির খান, মোশতাক আহমদ, সৈয়দ মিনহাজ উদ্দীন  মুসা, রফিকুল বারী রুম্মান, ডা. বাবুল হোসেন, হাজী গোলাম মোস্তফা চৌধুরী রুস্তুম, মাওলানা রমিজ উদ্দীন, মফিজুর রহমান জুবের, উজ্জল রঞ্জন চন্দ, নুরুল ইসলাম লিমন, রফিকুল ইসলাম শাহপরান, দিলোয়ার হোসেন রানা, আবুুল কালাম, শরীফ উদ্দীন মেহেদী, আব্দুস সাত্তার আমীন, ফয়জুর রহমান, কামাল আহমদ, হেলাল আহমদ, নাহিদ আহমদ, দেলোয়ার হোসেন, জুম্মান আহমদ, এডভোকেট ইসরাফিল আলী, আব্দুল হান্নান, আব্দুল মান্নান, ফখরুল আলম, ওলীউর রহমান, গোলজার আহমদ, সিরাজুল ইসলাম, দিলোয়ার হোসেন, আবু সাঈদ হিরন, মঈন উদ্দীন, এজাহারুল হক চৌধুরী মন্টু, হাবিবুর রহমান, সাব্বির আহমদ, আনোয়ার হোসেন, ইউসুফ আলী, এনামুল হক পাবেল, শাহজাহান আহমদ জুয়েল, দিলোয়ার হোসেন জয়, নুরুল আলম, আকবর আলী, সাইদুল ইসলাম, আব্দুল্লাহ আল মামুন, মাসুম আহমদ, দিদার ইবনে তাহের লস্কর, সুমন আহমদ, জুনেদ আহমদ, আব্দুল হাদী, সাহেদ আহমদ, আজাদ মিয়া, ছাত্রদল নেতা সোহেল ইবনে রাজা, মাহবুব আহমদ চৌধুরী, মাসুম পারভেজ, আমজাদ হোসেন, সুহেদুল ইসলাম সুহেদ, নুরুল হক, আল-আমীন, মন্তাজ হোসেন মুন্না, নাহিদ আহমদ, কয়েস আহমদ, শাহরিয়ার খান সাহেদ, আহমেদ মোহন, জাহেদ তালুকদার, শামসুদ্দিন শুভ, রুমান আহমদ, মনসুর আহমদ খান, ফারুক আহমদ, বাবুল আহমদ, আব্দুস সালাম, ফজল আহমদ, বাবুল হোসেন, সাব্বির আহমদ জুনু, নজরুল ইসলাম, ইউনুছ আলী, সোহেল আহমদ, বকুল মিয়া, আলাউদ্দিন, আমরোজ আলী, এলাইছ মিয়া, মুকিত আহমদ, রিয়াজ আহমদ, আব্দুস সালাম, আনা মিয়া, আক্তার মিয়া, আলাউদ্দিন, আশিক আহমদ, সহির উদ্দীন, আফাজ  উদ্দীন, বাবুল মিয়া, রুবেল আহমদ ও আব্দুস সামাদ প্রমুখ।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শহীদুর রহমান জুয়েল, সিলেট ব্যুরো #

শহীদুর রহমান জুয়েল (উদয় জুয়েল), সিলেট ব্যুরো ০১৭২৩৯১৭৭০৪

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com