আগৈলঝাড়ায় বাল্য বিয়েতে রাজি না হওয়ায় স্কুলছাত্রীসহ মা ও বোনকে পিটিয়ে আহত

৬৫ বার পঠিত

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) # বরিশালের আগৈলঝাড়ায় বাল্য বিয়েতে রাজি না হওয়ায় এক স্কুলছাত্রীসহ তার মা ও বোনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত দুই বোন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দিতে আসার পথে তাদের জোরপূর্বক তুলে নিতে আসে কথিত পাত্র আমল সরকার। পুলিশ সংবাদ পেয়ে ছেলে অমল সরকারকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

আগৈলঝাড়া প্রেসক্লাবে প্রদত্ত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার রত্মপুর ইউনিয়নের বারপাইকা গ্রামের নিপুল করের মেয়ে চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষাদাত্রী নিশি করকে জোরপূর্বক একই উপজেলার সাহেবেরহাট মোল্লাপাড়া গ্রামের আদিত্য সরকারের ছেলে অমল সরকারের সাথে বাল্য বিয়ে ঠিক করে। আগামী বৃহস্পতিবার নিশির সাথে অমলের বিয়ের দিন ধার্য ছিল। ওই বিয়েতে নিশি কর রাজি না হওয়ায় সোমবার রাতে তার চাচা বিপুল কর ও রনি কর স্কুল ছাত্রী নিশি করকে মারধর করে।

এসময় বাঁধা দিতে গেলে মা অনিতা কর, বোন নবম শ্রেণীর ছাত্রী ঈশিতা করকেও পিটিয়ে আহত করে। রাতেই আহত নিশি, অনিতা, ঈশিতাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত নিশি ও ঈশিতা গতকাল মঙ্গলবার সকালে আগৈলঝাড়া প্রেসক্লাবে এসে সাংবাদিকদের কাছে ঘটনার বর্ণনা দেন। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গাজী তারিক সালমনের কার্যালয়ে যাবার পথে কথিত পাত্র অমল সরকার তার সাথে থাকা লোকজন নিয়ে নিশিকে তুলে নিতে চাইলে তার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে পুলিশকে সংবাদ দেয়। আগৈলঝাড়া থানার এসআই মোশাররফ সঙ্গীয় ফোর্সসহ অমলকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। আটকের সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন, স্কুলছাত্রী নিশি বা তার পরিবার অভিযোগ করলে আটককৃত অমলের বিরুদ্ধে আইনানূগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অপূর্ব লাল সরকার, বরিশাল প্রতিনিধি #

01912-346484

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com