উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যে আগৈলঝাড়ায় স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত

১১৩ বার পঠিত

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) # বরিশালের আগৈলঝাড়ায় বৃহস্পতিবার সকালে নিজ নিজ বিদ্যালয়ে এসেছিল মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের কোলাহলে মুখরিত ছিল উপজেলার ২২টি মাধ্যমিক স্কুল ও মাদ্রাসা। কেবল নির্বাচন নয়, এ যেন নির্বাচনী উৎসব। ‘স্টুডেন্ট কেবিনেট’ গঠনের এ নির্বাচনী উৎসবে যোগ দিতে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে পা রেখেই তারা মেতে ওঠে উল্লাসে। নিজ নিজ স্কুলে নির্বাচনী উৎসবে শামিল হয়ে শিক্ষার উন্নয়নে ছাত্রছাত্রীরা নিজেদেরই ভোট দিয়ে নির্বাচন করলেন নিজেদের প্রতিনিধি।

এ শিশু শিক্ষার্থীদেরই কেউ হয়েছে প্রধান নির্বাচন কমিশনার, প্রিজাইডিং, সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেছে শিশুরাই। ব্যালটের মাধ্যমে সরাসরি ভোটে প্রতিটি বিদ্যালয়ে ৮ জন করে প্রার্থী নির্বাচিত হলো। আগৈলঝাড়াসহ সারাদেশে ২২ হাজার মাধ্যমিক স্কুল ও মাদ্রাসায় উৎসবের আমেজে অনুষ্ঠিত হয়েছে মাধ্যমিক পর্যায়ের ‘স্টুডেন্টস কেবিনেট’ নির্বাচন। বৃহস্পতিবার সকালে গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এবং দুপুরে আগৈলঝাড়া ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীতে গিয়ে দেখা যায়, আনন্দঘণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনায় শিক্ষার্থীরা ভোট দিচ্ছে। প্রার্থীরাও উৎসবে শামিল হয়ে ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করছেন।

বিদ্যালয় দু’টির প্রধান শিক্ষক মো. জহিরুল হক এবং যতীন্দ্র নাথ মিস্ত্রী তার প্রতিক্রিয়ায় বললেন, এই আয়োজন শিশুদের নেতৃত্ব বিকাশে কাজ করবে। শিশুরা অত্যন্ত খুশি। এদিকে আবার অনেক শিক্ষকই মনে করছেন এর ফলে শিশুদের ক্ষতিও হতে পারে। তাদের মতে, নির্বাচনের নাম করে ছোট ছোট এই শিশুদের মাঝে ‘রাজনীতির বিষফোঁড়া ঢোকানো হচ্ছে। কাজের কাজ কিছুই হচ্ছেনা। শিশুরা এই নিয়েই ব্যস্ত থাকবে। প্রসঙ্গত, শিক্ষার্থীদের সরাসরি ভোটে নির্বাচিত আটজন প্রতিনিধির প্রধান দায়িত্ব ও সম্পাদিত কর্মকান্ডগুলো হচ্ছে- পরিবেশ সংরক্ষণ (বিদ্যালয়, আঙ্গিনা ও টয়লেট পরিষ্কার এবং বর্জ ব্যবস্থাপনা), পুস্তক ও শিখন সামগ্রী, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি এবং সহপাঠ কার্যক্রম, পানি সম্পদ, বৃক্ষ রোপণ ও বাগান তৈরি, দিবস ও অনুষ্ঠান উদযাপন এবং অভ্যর্থনা ও আপায়ন, আইসিটি। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসব দায়িত্ব বণ্টন করবেন।  

আগৈলঝাড়া ভেগাই হালদার পাবলিক একাডেমীতে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন অমিত মাহমুদ সাব্বির। প্রিজাইডিং অফিসার ছিলেন মো. তানভীর হাওলাদার। শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয়কের দায়িত্বে ছিলেন শরীর চর্চা শিক্ষক তপন কুমার সমদ্দার। এখানে ২১জন প্রার্থীর মধ্যে নির্বাচিত ৮জন হলেন- ১০ম শ্রেণী- শাকিব খান (২৮৫), ৯ম শ্রেণী- মো. সাফিন (৩৬২), ৮ম শ্রেণী- রবিউল ইসলাম (৩৯৪), ৭ম শ্রেণী- পাফিন মজুমদার (২৯৬), ৬ষ্ঠ শ্রেণী- অভ্রনীল সাহা অতনু (১৩৫) এবং অতিরিক্ত ৩জন হলেন- ১০ম শ্রেণী- শোভনুজ্জামান নভো (২১৮), ৯ম শ্রেণী- রিফাত হোসেন বাবুল (১৯৮) ও ৭ম শ্রেণী- তুখোড় মল্লিক তূর্য (১৮৭)। ভোটদান পর্যবেক্ষণ ও ফলাফল ঘোষণায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম সহ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দ, শিক্ষকমন্ডলী ও স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অপূর্ব লাল সরকার, বরিশাল প্রতিনিধি #

01912-346484

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com