সাবেক সাংসদ আনোয়ার হোসেন এর মৃত্যুতে জহিরুল হকের শোক

১০০ বার পঠিত

আদিত্ব্য কামাল, নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির চেয়ারপারর্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া -৫ নবীনগর আসনের চারবার নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা, কাজী মো: আনোয়ার হোসেন শুক্রবার দুপুরে ঢাকার এ্যাপোলো হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন (ইন্না…..রাজেউন)। কাজী আনোয়ারের মৃত্যুতে শোকে মুহ্যমান নবীনগরবাসী । মৃত্যুকালে স্ত্রী , ১ ছেলে ,২ মেয়েসহ অসংখ্যবার গুনীগ্রাহী রেখে গেছেন। শুক্রবার আছর নামাজের পর ঢাকায় গুলশান মসজিদে প্রথম জানাজা, শনিবার জোহর নামাজের পর নবীনগর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ২য় জানাজা, শনিবার আছর নামাজের পর তার নিজ গ্রাম জশাতুয়ায় কাজী আনোয়ার হোসেনের প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসায় জানাজা শেষে দাফন করা হবে।

কাজী মো: আনোয়ার হোসেন ১৯৫৫ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার জশাতুয়া গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। পিতার নাম মরহুম কাজী আরফান উদ্দিন। কাজী আনোয়ার ছাত্র জীবনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সমর্থক ছিলেন, ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যূত্থানে এবং ১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ গ্রহন করেন, ১৯৭৪ সালে নিউ মডেল ডিগ্রী কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রী লাভ করে ১৯৭৬ সালে মাচের্ন্ট নেভী,হেলেনিক,পার্ক এভিনিউ, নিউইয়র্ক-তৃতীয় কর্মকর্তা ( ডেক) হিসেবে যোগদান করে যুক্তরাষ্ট গমন করেন। ১৯৭৯ সালে দেশে ফিরে এসে ব্যাবসা শুরু করেন। ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া (৫) নবীনগর নির্বাচনী এলাকা থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

পর্যায় ক্রমে ১৯৮৮ ও ১৯৯১ সালে জাতীয় পার্টি থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি জাতীয় পাটির ভাইস চেয়ারম্যান পদ লাভ করেন। ২০০১ সালে চার দলীয় ঐক্যজোটের বাংলাদেশ জাতীয় পাটির মনোনয়ন প্রাপ্ত হয়ে পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।ওই সময় তিনি বাংলাদেশ জাতীয় পাটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ছিলেন। রাজনৈতিক কারনে তিনি ২০০৬ সালে তার সমর্থকদের নিয়ে বিএনপিতে যোগদান করে দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য পদ লাভ করেন। ২০১৬ সালে বিএনপির কাউন্সিলের পর তিনি বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা পদে নিযুক্ত হন।

কাজী মো: আনোয়ার হোসেন নবীনগরের মাটি ও মানুষের একজন প্রিয় নেতা, চারবার তাকে বিপুলভোটে নির্বাচিত করে নবীনগর বাসী সেই প্রমান দিয়েছেন। এদিকে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক খোকন গভীর শোক ও তার পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন। এবং তিনি মনে করেন কাজী মোঃ আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে শুধু নবীনগর-ব্রাহ্মণবাড়ীয়া নয়, গোটা বাংলাদেশর রাজনীতির অঙ্গনে এক অপূরণীয় শুন্যতার সৃষ্টি হয়েছে যা কখনো পূরণ হবার নয়। জাতি একজন প্রজ্ঞাবান মননশীল ও সংগ্রামী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হারালেন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আদিত্ব্য কামাল, ব্রাক্ষণবাড়ীয়া প্রতিনিধি #

Adithay Kamal House#412, Alhampara, Bhadughar 3400 Brahmanbaria, Bangladesh Mobile : 01713-209385

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com