জলবায়ু পরিবর্তনে

প্রাকৃতিক ভারসাম্য, অভিযোজন সক্ষমতা ও সহনশীলতা বৃদ্ধি শীর্ষক বিভাগীয় পর্যায়ে সংলাপ অনুষ্ঠিত

৬০ বার পঠিত

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) # বরিশালে আভাস এর আয়োজনে, কানাডিয়ান হাই কমিশনের অর্থায়নে বরিশালের আলেকান্দায় সংস্থার প্রশিক্ষণ কক্ষে ২৬ ফেব্রয়ারী রবিবার ‘জলবায়ু পরিবর্তনে প্রাকৃতিক ভারসাম্য ও জীবন-জীবিকা রক্ষা করি, অভিযোজন সক্ষমতা ও সহনশীলতা বৃদ্ধি করি’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে বিভাগীয় পর্যায়ে সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. জাকির হোসেন। সভা পরিচালনায় ছিলেন আভাস এর নির্বাহী পরিচালক জনাব রহিমা সুলতানা কাজল।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোহাম্মদ গোলাম কুদ্দুস ভুঁইয়া, বরিশাল প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মানবেন্দ্র লাল সাহা, সিপিপি উপ-পরিচালক মো. আব্দুর রশিদ, ডিআরআরও প্রকাশ চন্দ্র বিশ্বাস, ডিপিএইচই সহকারী প্রকৌশলী আলতাফ হোসেন, হটিকালচার স্পেসালিস্ট ডিএইচই জিএমএম কবির খান, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রাশিদা বেগম, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ শাহিন এবং চন্দ্রমোহন ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজ। সংলাপ সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন এনজিও প্রতিনিধি, শিক্ষক, এ্যাডভোকেট, সংবাদকর্মী, কমিউনিটি লিডার এবং যুবকরা।

সংলাপ সভায় সহযোগিতা করেন এসআরএআর প্রকল্প সমন্বয়কারী মো. আলি আহসান, আভাস প্রতিনিধি মো. খায়রুল ইসলাম এবং তৌহিদ উদ্দিন আহাম্মেদ। বক্তারা জলবায়ু পরিবর্তনের কারণ হিসেবে কলকারখানার কালো ধোয়া, ইটভাটা, বায়ুদূষণ, অবাধে গাছ নিধন, অপরিকল্পিত নগরায়ণ, পরিকল্পনাহীন উন্নয়ন, লোকজজ্ঞানের ব্যবহার না থাকাকেই বেশী দায়ী করেছেন। তারা মনে করেন যে, জলবায়ূ পরিবর্তন ঠেকাতে হলে জনগণের সচেতনতা বৃদ্ধি, মানসিকতার পরিবর্তন, জনঅংশগ্রহণ বাড়ানো, সবুজ বনায়ন করা, নদী ও খাল পুনঃখনন, জলধার রক্ষা করা এবং জিও- এনজিওদের একযোগে কাজ করার মধ্য দিয়েই জলবায়ু পরিবর্তন ঠেকানো সম্ভব।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অপূর্ব লাল সরকার, বরিশাল প্রতিনিধি #

01912-346484

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com