প্রকাশ‌্যে শিক্ষককে গুলি করে হত‌্যা

৯৩ বার পঠিত

নাটোরের লালপুরে দিনে দুপুরে কলেজশিক্ষককে গুলি চালিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এসময় ওই শিক্ষকের ব্যবহৃত মোটর সাইকেলও নিয়ে গেছে তারা। বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি)  দুপুর সাড়ে ১২টার পর উপজেলার বাবলিবাড়ি এলাকায় বাঘা-লালপুর সড়কে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান লালপুর থানার ওসি ওবায়দুল হক। নিহত কলেজ শিক্ষকের নাম মোশারফ হোসেন। তিনি লালপুরের মহরকয়া ডিগ্রি কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষক ছিলেন। মোশারফ হোসেন বাঘা উপজেলার পীরগাছা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

লালপুর থানার ওসি ওবায়দুল হক বলেন, মোশারফ হোসেন কলেজ থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় পথে বাবলিবাড়ি এলাকায় দুর্বৃত্তরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে তার বুকের বামপাশে গুলি লাগে। পরে স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বাঘা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি।

ওসি ওবায়দুল বলেন, কলেজ থেকে তিনি দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বাড়ির উদেশ্যে রওনা হন। বাবলিবাড়ি মাঠের মধ্যে দুপুর ১টার দিকে তাকে রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখে পথচারীরা। পরে মোশারফকে উদ্ধার করে বাঘা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। মোশারফের মোটরসাইকেল ঘটনাস্থলে পাওয়া যায়নি। দুর্বৃত্তরা গুলি করে মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নিয়ে গেছে বলে ধারণা ওসি ওবায়দুলের।

বাঘা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক জহুরুল ইসলাম বলেন, দুপুর পৌনে ২টার দিকে মোশারফ হোসেনকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। তবে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তিনি মারা যান। তার বুকের বাম পাশে একটি গুলির চিহ্ন রয়েছে বলে জানান চিকিৎসক জহুরুল ইসলাম।

বাঘা থানার ওসি আলী মাহমুদ বলেন, খবর পেয়ে তিনিও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সেখানে তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল পাওয়া যায়নি। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা গুলি করে মোটর সাইকেল ছিনিয়ে নিয়ে গেছে। তিনি আরও বলেন, বাঘা-লালপুর সড়কের বাবলিবাড়ি দুর্গম এলাকা। সেখানে বাঘা ও লালপুর থানা পুলিশ রাতে টহল দেয়। এ জন্য আধা কিলোমিটারের মধ্যে দুই থানার দুইটি পুলিশ বক্স করা হয়েছে। রাতে সেখানে পুলিশ থাকে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com