তারাজুল হত্যার বিচার দাবিতে নন্দীগ্রামে আওয়ামীলীগের প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ

২৩ বার পঠিত

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার গাবতলী উপজেলার সোনারাই ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান তারাজুল হত্যার বিচার দাবি করেছেন নন্দীগ্রাম উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগ। রোববার একযুক্ত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান তারাজুল হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম রফিক, সিনিয়র যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রানা, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মুকুল হোসেন মুকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মুক্তার হোসেন বকুল, দপ্তর সম্পাদক আতোয়ার হোসেন মান্না, প্রচার সম্পাদক ফিরোজ কামাল ফারুক, আওয়ামীলীগ নেতা মাহাবুবর রহমান বিপুল, আইনুল হক, মামুনুর রশিদ, শাহাদত হোসেন মিঠু, হযরত আলী, আব্দুল মান্নান, শাজাহান আলী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুন, সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বাদশা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু সাঈদ, সাধারন সম্পাদক কামরুল হাসান সবুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক খাইরুল ইসলাম সাহেদ, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আলী রেজা মারুফ বাবু, সাধারন সম্পাদক সরফুল হক উজ্জল, কৃষকলীগের আহবায়ক সফিকুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক নিতাই চন্দ্র প্রমূখ।

উল্লেখ্য, গত ৮জুলাই দিবাগত রাতে নিজ বাড়িতে শয়ন কক্ষে আওয়ামীলীগের নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান তারাজুল ইসলাামকে(৩৭) মাথায় গুলি করে একদল সন্ত্রাসী। তাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়ার শজিমেক হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে ওই রাতেই ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাথার অপারেশন করে গুলি বের করে। এরপরেও তার অবস্থার অবনতি হলে লাইফ সাপোর্টে বগুড়ার কানুছগাড়ী তেসলা নিউরো সাইন্স ক্লিনিকে প্রেরন করে। দীর্ঘ ১৫দিন অচেতন তারাজুল লাইফ সাপোর্টে থাকার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত শনিবার রাতে মারা যান।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার

Bogra Offce

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com