নাটোরে বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে হামলা

১৮ বার পঠিত

সাইফুল ইসলাম, নাটোর প্রতিনিধি # নাটোরের সিংড়ার লালোর ইউনিয়নের বিএনপি মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জব্বারের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থীর কর্ম-সমর্থকরা। এসময় নির্বাচনী পোস্টার, লিফলেট ছিড়ে পুকুরে ফেলে দেয় দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার দুপুরে লালোরের ঢাকডোর গ্রামে চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। এদিকে শুকাশ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর মাইক ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসীরা জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে ১০/১২টি মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে অতর্কিত ভাবে লালোর ইউনিয়নে বিএনপি মনোনিত প্রার্থী আব্দুল জব্বারের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় সন্ত্রাসীরা ঘরের ওয়ারড্রব ভাংচুর করে আসবাবপত্র এবং পোশাক তছনছ করে। এছাড়া নির্বাচনে ব্যবহৃত পোস্টার এবং লিফলেট ছিড়ে পাশ্বর্তী পুকুরে ফেলে দেয়। এসময় সন্ত্রাসীরা প্রার্থীকে খোঁজ করতে থাকে। ঘরে ঘুমিয়ে থাকা প্রার্থীর নাতীকে জিম্মি করে নির্বাচন থেকে সরে না দাঁড়ালে মেরে ফেলা হবে বলেও হুমকি দিয়ে চলে যায়।

বিএনপি মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জব্বার বলেন, আমার জনপ্রিয়তায় ভীত হয়ে আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী নজরুল ইসলাম তার কর্মী-সমর্থকদের দিয়ে এই সব কাজ করাচ্ছে। ভাংচুরের বিষয়ে আব্দুল জব্বার বলেন, দুপুরে আমি নির্বাচনী কাজে বাহিরে থাকায় একদল সন্ত্রাসী আমার বাড়িতে হামলা করে ভাংচুর করেছে। পোস্টার ছিড়ে পানিতে ফেলে দিয়ে গেছে। তাছাড়া প্রতিনিয়িত প্রচারনা চালাতে গিয়ে বাধার সম্মূখীন হচ্ছি। রিটানিং কর্মকর্তাকে মৌখিক ভাবে জানানো হয়েছে। নির্বাচন সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ হবে কিনা সংশয় রয়েছে।

তবে আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী নজরুল ইসলাম তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, তার কোন নেতা-কর্মী বিএনপি প্রার্থীর বাড়িতে হামলা করেনি। এদিকে, সিংড়ার শুকাশ ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আশিক ইকবালের  প্রচার মাইক ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার দুপুরে আগমুরশন কইলা বাজারে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আশিক ইকবালের পক্ষে প্রচারনার জন্য মাইক বের করা হয়। এসময় আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী আব্দুল মজিদের ছেলে জার্জিসের নেতৃত্বে প্রচার মাইক ভেঙ্গে ফেলা হয়। এসময় মাইক বহনকারী ভ্যানও খাদে ফেলে দেয় তারা। এছাড়া বিভিন্ন জায়গা পোস্টার ছিড়ে ফেলাও অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।  এসব বিষয়ে সিংড়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাচন সমন্বয়কারী হেমন্ত হেনরি কুবি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সংশ্লিষ্ট রিটার্নি কর্মকর্তাদের ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com