কাউখালীতে বন্যায় বেড়িবাঁধ ভেঙে ফসলীজমিসহ বাড়ীঘর রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষতিসাধন

সৈয়দ বশির আহম্মেদ, কাউখালী (পিরোজপুর) প্রতিনিধি ॥ পিরোজপুরের কাউখালীতে  উজানের পানির ঢলে কচা নদীর করাল গ্রাসে শিয়ালকাঠী ইউনিয়ন ও আমরাজুড়ী ইউনিয়নের রক্ষা বাঁধ ভেঙে ফসলী জমি,বাড়ী-ঘর, রাস্তা-ঘাট সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানপার ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়েছে। ওই সকল ইউনিয়নের বেড়িবাঁধ ভেঙে যাওয়ার হাজার হাজার হেক্টর আমন বীজতলা পানির নীচে সপ্তাহব্যাপী ডুবে থাকায় বীজতলা সম্পূর্ণ পঁচে গেছে। কৃষকরা আমন বীজের জন্য নতুন করে বীজতলা তৈরী করতে হাজার হাজার টাকা খরচ হবে বলে কৃষক আঃ মন্নান জানান। এদিকে পানি প্রবেশ করায় উপজেলার অর্ধশত ঘেরের মাছ পানিতে ভেসে গেছে। বেড়িবাঁধের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ার বাড়ীঘর পানি বন্দী হয়ে রয়েছে দীর্ঘদিন ধরে।

ফলে ওইসব এলাকার রবি শস্য এবং স্থায়ী গাছপালার ব্যাপক ক্ষতি হবে বলে কৃষকরা আশঙ্কা করছেন। বেড়িবাঁধ সম্পূর্ণ ধসে যাওয়ায় দিনরাত আতঙ্কের মধ্যে থাকে এলাকাবাসী। কখনও আবার পানির চাপ বৃদ্ধি পেলে তাদেরকে ভাসিয়ে নিয়ে যাবে। এসকল এলাকার গবাদি পশুর গো খাদ্যের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। এসকল এলাকায় ব্যাপকহারে শিশুর ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। কচা নদীর কড়াল গ্রাসে এসকল এলাকায় প্রতিদিনই অব্যাহতভাবে ভাঙন দেখা দিয়েছে। প্রায় দুই ইউনিয়নের ১০টি গ্রামের মানুষ এখন নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে। এ ব্যাপারে আমরাজুড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সামুদ্দোহা চাঁদ বলেন, বন্যায় এবং নদীর অব্যাহত ভাঙনে বেড়িবাঁধসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ইতিমধ্যেই নদীগর্ভে হারিয়ে যাওয়ায় এলাকাবাসী চরম উৎকণ্ঠার মধ্যে দিনযাপন করছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
২২ বার পঠিত
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com