টাঙ্গাইলে বন্যায় প্রাণী সম্পদে ২৭ কোটি টাকার ক্ষতি

৩০ বার পঠিত

মোঃ নাজমুল হাসান, টাঙ্গাইল।। টাঙ্গাইলে ৭টি উপজেলায় বন্যার কবলে পড়ে ২৬ কোটি, ৬৭ লক্ষ, ৮৫ হাজার ৮শ টাকার প্রাণী সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে । জেলা প্রানী সম্পদ দপ্তর সূত্রে এ তথ্য পাওয়া যায়। তাদরে দেয়া তথ্যমতে জেলার ১২টি উপজেলার মধ্যে টাঙ্গাইল সদর, বাসাইল, দেলদুয়ার, নাগরপুর, কালিহাতি, ভূয়াপুর ও গোপালপুর উপজেলায় গবাদি পশুর খামার ১১৮টি, হাস-মুরগীর খামারের সংখ্যা ৪৪৭ টিতে এ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

 টাঙ্গাইল প্রানীসম্পদের তথ্য মতে, বিনষ্ট পশুপাখির দানাদার খাদ্যের পরিমান দাড়িয়েছে ৭শ টনে, যার মূল্য দেখানো হয়েছে ২ কোটি ১০ লক্ষ টাকা, খরের পরিমান ২১ হাজার ২শ টন যার মূল্য দেখানো হয়েছে ৯ কোটি ৭ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা, বিনস্ট ঘাসের পরিমান ১১ হাজার ৬শ ৭০ টন যার মূল্য দেখানো হয়েছে ২ কোটি ৫৮ লক্ষ ১০ হাজার টাকা, মৃত পশু পাখির ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ৯০ হাজার ৮শ টাকা।

জেলা অতিরিক্ত প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা জানান, এ পর্যন্ত ৯ হাজার ৭২ টি গবাদি পশু ও ৫৬ হাজার ৫০ টি হাস-মুরগি নিয়মিত টিকাদান এবং চিকিৎসার আওতায় আনা সম্ভব হয়েছে। এদিকে বন্যা দূর্গত এলাকা ঘুরে দেখা গেছে মানুষের খাদ্যের চেয়ে তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে গো খাদ্য এবং হাস- মুরগীর খাবারের। বন্যায় তলিয়ে গেছে চারণভূমি, পচে নস্ট হয়ে গেছে খর। দিশে হারা হয়ে পড়েছে এসব দূর্গত এলাকার পশু ও হাসমুরগী পালনকারী পরিবার গুলো।

সদর উপজেলা কাকুয়া ইউনিয়নের চড়পৌলী গ্রামের মোমরেজ মিয়া বলেন, আমাদের ত্রানের চেয়ে বেশি দরকার হাস-মুরগী এবং গরুর খাবারের। সরকারী বেসরকারী উদ্যোগে হাস-মুরগী এবং গো-খাদ্যের ব্যাবস্থা করবে এমনটাই প্রত্যাশা ঐ সকল দূর্গত এলাকাবাসীর।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোঃ নাজমুল হাসান টাঙ্গাইল প্রতিনিধি #

স্থায়ী ঠিকানা : গ্রাম-জগতলা, ডাকঘর-লাউহাটী, উপজেলা-নাগরপুর, জেলা-টাঙ্গাইল। বর্তমান ঠিকানা : গ্রাম-জগতলা, ডাকঘর-লাউহাটী, উপজেলা-নাগরপুর, জেলা-টাঙ্গাইল। জন্ম তারিখ : ০৩/০৮/১৯৯৯ইং জাতীয়তা : বাংলাদেশী। ধর্ম : ইসলাম। মোবাইল : ০১৭১০-৬৭৩৩৪৪, ০১৫৫৮-৯৯৬০৭৪

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com