ভারতে ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতা নিয়ে উদ্বিগ্ন আমির খান, দেশ ছেড়ে দেয়ার ভাবনা স্ত্রী কিরণের

এই সংবাদ ৫৯ বার পঠিত

ভারতে ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন প্রখ্যাত বলিউড অভিনেতা আমির খান। সোমবার দিল্লিতে রামনাথ গোয়েঙ্কা পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে দেশের বর্তমান অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন  তিনি। আমির বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন অংশে যা হচ্ছে দৈনিক খবরের কাগজ পড়লে তা বোঝা যায়। এ সব খবরে আমি অবশ্যই চিন্তিত।’ দেশের চলমান অসহিষ্ণুতা প্রসঙ্গে তিনি বা তার পরিবার কতটা উদ্বিগ্ন তা বোঝাতে স্ত্রী কিরণ রাওয়ের প্রসঙ্গ উত্থাপন করেন। তিনি বলেন, ‘কিরণের সঙ্গে যখন এই বিষয়ে কথা বলি তখন ও আমাকে বলে আমাদের দেশ ছেড়ে চলে যেতে হবে না তো? ও ওর বাচ্চার নিরাপত্তার জন্য ভীত। আমাদের আশেপাশের পরিবেশ কী হবে তা ভেবে ও ভয় পাচ্ছে। এমনকি দৈনিক খবরের কাগজও খুলতে ভয় পাচ্ছে কিরণ।’ আমির খানের এ ধরণের মন্তব্যে দেশজুড়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। এমনকি তা দেশের সীমানা ছাড়িয়ে চলে গেছে বিদেশেও। আমির বলেন, ‘গত সাত-আট মাস ধরে দেশে অসহিষ্ণুতা ক্রমশ বেড়ে চলেছে। মানুষজন ভয় পাচ্ছে। নিরাপত্তাহীনতায়  ভুগছেন। যাদের আমরা পাঁচ বছরের জন্য প্রতিনিধি হিসেবে আমাদের দেখাশোনা করার জন্য নির্বাচিত করেছি তারা যদি আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে কড়া মনোভাব নেয় তাহলে নিরাপত্তার অনুভূতি আসে। কিন্তু আমরা যদি দেখি এসবের বিরুদ্ধে কিছুই হচ্ছে না তাহলে আমাদের মধ্যে নিরাপত্তাহীনতার ভাবনা চলে আসে।’

ধর্ম এবং সন্ত্রাসবাদীদের মধ্যে পার্থক্য বোঝাতে গিয়ে আমির বলেন, ‘কাউকে হিংসাত্মক কাজ করতে দেখলে তার সঙ্গে ধর্মকে জুড়ে দেয়া হচ্ছে। তাকে হিন্দু সন্ত্রাসবাদী বা মুসলিম সন্ত্রাসবাদী বলে ছাপ দেয়া হয়। এটাই সবচেয়ে বড় ভুল। সন্ত্রাসীরা সন্ত্রাসীই। তাদের কোনো ধর্ম নেই।’ প্যারিসে সন্ত্রাসী সংগঠন আইএসআইএল-এর হামলা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে আমির খান বলেন, ‘এ ধরণের ঘটনায় আমি চিন্তিত। ধর্মের নামে হত্যা কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়। যারা নিরপরাধ মানুষকে হত্যা করে তারা কখনো মুসলমান হতে পারে না। ওরা নিজেদের মুসলমান বলে দাবি করতে পারে কিন্তু আমরা কখনোই তাদের মুসলমান হিসেবে বিবেচনা করতে পারি না।’

 

ভারতে অসহিষ্ণুতা প্রসঙ্গে বলিউড কাঁপানো অভিনেতা শাহরুখ খান, সালমান খান ও প্রবীণ সরোদশিল্পী আমজাদ আলি খানের পর এবার আমির খান মুখ খুললেন। নিজের ৫০তম জন্মদিনে তিনি বলেছিলেন, ‘‘দেশে চরম অসহিষ্ণুতার পরিবেশ তৈরি হয়েছে। এ ভাবে চলতে থাকলে আমরা কয়েক দিনের মধ্যেই অন্ধকার যুগে ফিরে যাব।’’ এদিকে, শাসক দল বিজেপিঘেঁষা হিসেবে পরিচিত অভিনেতা অনুপম খের আমির খানের মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন। তিনি প্রশ্ন ছুড়ে বলেছেন, ‘আপনি কিরণকে জিজ্ঞাসা করেছেন সে কোন দেশে যেতে চায়? আপনি কি তাকে বলেছেন এই দেশ আমাকে আমির খান বানিয়েছে? আপনি কি তাকে বলেছেন, এদেশে এর চেয়েও খারাপ সময় দেখলেও দেশ ছাড়ার কথা কখনো আপনার মনে আসেনি?’  

 

আমির খানের মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করে আজ (মঙ্গলবার) সকালে বিজেপি এমপি মনোজ তেওয়ারি বলেছেন, ‘আমির খানের বিবৃতিতে ভারত মাতার অসম্মান হয়েছে।’ মনোজ তেওয়ারি বলেন, ‘আমির খানের যদি একটুও দেশপ্রেম থাকে তাহলে তিনি নিজের মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চান। তিনি নিজের ফ্যানদের কথাও চিন্তা করেননি।’  অসহিষ্ণুতা প্রসঙ্গে মুখ খুললে শাসক দলের পক্ষ থেকে এর আগেও রোষের মুখে পড়েছেন অন্যরা। এর আগে শাহরুখ খানকে ‘দেশদ্রোহী’ বলেছিলেন বিজেপি’র সাধারণ সম্পাদক  কৈলাস বিজয়বর্গী। শাহরুখ খান ভারত বিরোধী ষড়যন্ত্রে সুর মেলাচ্ছেন বলেও কৈলাস বিজয়বর্গী মন্তব্য করেন।বিজেপি এমপি মনোজ তেওয়ারি আমির খান সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করলেও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল আমির খানের পাশেই দাঁড়িয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘আমির খানের বিবৃতির প্রতিটি শব্দই সত্যি এবং সঠিক। এ নিয়ে আওয়াজ ওঠানোর জন্য আমি তার প্রশংসা করছি।’ এদিকে, আমির খানের মন্তব্য প্রসঙ্গে পাকিস্তানের প্রখ্যাত সাংবাদিক হামিদ মীর আজ (মঙ্গলবার) টুইটারে বলেছেন, ‘সহনশীলতা ছাড়া গণতন্ত্র বেঁচে থাকতে পারে না। এটা জেনে খুব দুঃখ হচ্ছে যে শাহরুখ খানের মতো আমির খানও নিজেকে নিরাপদ মনে করছেন না।’

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com