আজ বৃহস্পতিবার, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ২৯শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী, শরৎকাল, সময়ঃ দুপুর ২:৪৯ মিনিট | Bangla Font Converter | লাইভ ক্রিকেট

অভিনেত্রী মিশু রবিনের চিত্রকর্মের মডেল হলেন রাশেদ রেহমান এর বইয়ের প্রচ্ছদ

বিশ্বকবি কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও স্বাধীন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী জাতীয় চারনেতার অন্যতম শহীদ ক্যাপটেন মনসুর আলীরর স্মৃতিবিজরিত, তদানীন্তন পাবনা জেলার মহকুমাখ্যাত সিরাজগঞ্জ অন্তর্গত প্রমত্তা যমুনার পাড়ঘেসে দাড়ানো উপজেলা কাজিপুর, ভৌগলিক ভাবে খরশ্রোতা যমুনানদী দাড়া বিভক্ত, এই যমুনার প্রত্যান্ত চরেই জন্মেছেন বর্তমান সময়ের তারুণ্য দ্বীপ্ত শব্দসৈনিক, উত্তরণ দুইবাংলার সেরা তরুণ লেখক সংগঠক, ক্যাপটেন সম্পাদক রাশেদ রেহমান, শৈশবে স্বচক্ষে দেখা যমুনা চরের অসচ্ছল ও নিম্নআয়ের মানুষ অর্থনৈতিক টানাপোড়ন, জীবিকা নির্বাহের করুণ আর্তনাত, সামাজিক কৃষ্টি কঠিন বাস্তবতা নিয়ে নির্মিত রাশেদ রেহমানের “আজিরন বেওয়া’।

 

আজিরন অসচ্ছল নিম্নবৃত্ত পরিবারের জন্মনেয়া চঞ্চলা ও বুদ্ধিমতি তরুণী, শৈশবের স্বপ্নমাখা যমুনায় পালতুলে নৌকা চলা, সলাৎ সলাৎ দাড়বাওয়া, গুন টেনে দুরতিক্রমণ, মাছরাঙা ঈগল মাছের নিশানায় জলের উপর ডানা ঝাপটিয়ে তীক্ন দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকা, ঝপাৎ করে মাছ ধরেনিয়ে কাশবনের গহীন অরণ্যে হারিয়ে যাওয়া, পৌষে মাদারবাশ উঠলে ফুফুর সাথে চ্যালা হতে হতে তার মাদার ধরা, স্বামীর সংসারের দৈন্যদশা, দাস প্রথারমত বছির ও মানিকের চাকর খাটা, সিলেটে কাবার খাটা, সামাজিক কুসংস্কার,সুফিয়ার পরকীয়ায় আশক্তি, মোড়লশ্রেনীর শোষন বঞ্চনার শিকার হয়ে আজিবার আত্বহত্যা, সবশেষে বছিরের দৈন্যতার কাছে আত্বসর্মপনের এক কালজয়ী কাহিনী নিয়ে তৈরী “আজিরন বেওয়া”

 

এ বিষয়ে যার সুন্দর অবয়ব নিয়ে বইটির প্রচ্ছদ করা হয়েছে অভিনেত্রী মডেল ও উপস্থাপক মিশু চৌধুরীকে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন – আমি রাশেদ রেহমান কে ভালভাবে চিনিনা তার বিষয়ে জেনেছি দুবাই প্রবাসী চিত্রশিল্পী জাহেদুর রহমান রবিন ভাইয়ের কাছে, ফোনে রবিন ভাইয়ের কাছে গল্পটি শুনে আমি কেঁদে ফেলেছিলাম, এমন একটা ডকুমেন্টারি উপন্যাসে মডেল হতে পেরে আমি গর্বিত। বর্তমান সময়ের আলোকিত তরুণ যার যাদু ছড়িয়ে পরেছে দেশ হতে দেশান্তরে স্বীকৃতি স্বরুপ পেয়েছেন শিল্পী খ্যাতি সেই প্রচ্ছদ শিল্পী জাহেদুর রহমান রবিন বলেন – “আজিরন বেওয়া” গল্প পড়ে আমার ভীষণ ভাল লেগেছিল তাই মিশু চৌধুরীকে এ বিষয়ে উদ্বু্দ্ধ করি আমার বিশ্বাস উপন্যাসটি এবারের বইমেলার শ্রেষ্ঠ হওয়ার খ্যাতি অর্জন করবে ইনশাআল্লাহ,। তিনতারুন্যের যৌথ প্রায়শ “আজিরন বেওয়া” ‘সকল পাঠকের মন জয় করবে এটাই কামনা করছি।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com