সাকিবের বিশ্বাস অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ফাইনালে উঠবেই

এই সংবাদ ৩০ বার পঠিত

বুধবার থেকে চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ। প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ গতবারের চ্যাম্পিয়ন দক্ষিণ আফ্রিকা। ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের অন্য দুই প্রতিপক্ষ নামিবিয়া ও স্কটল্যান্ড। এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ অংশ নিচ্ছে সবচেয়ে অভিজ্ঞ দল নিয়ে। সাম্প্রতিক সময়ে পারফরম্যান্সও দুর্দান্ত। সব মিলিয়ে তরুণ ক্রিকেটারদের কাছে প্রত্যাশা একটু বেশিই বাংলাদেশের মানুষের। সেই প্রত্যাশার প্রতিদান দিতেও প্রস্তুত মিরাজ-শান্তরা। প্রথম ম্যাচে জয় ছাড়া অন্য কিছুই ভাবছেন না ভবিষ্যতের তারকা ক্রিকেটাররা।

 

শুরুতে কঠিন প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হলেও জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক মেহেদি হাসান মিরাজ, ‘অবশ্যই আমাদের লক্ষ্য জয়। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ জিততে পারলে আত্মবিশ্বাসও অনেক বেড়ে যাবে। তাই জয়ের কোনো বিকল্প নেই। আমরা এতদিন ধরে যেভাবে প্রস্তুতি নিয়েছি তাতে সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবেই।’

 

গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুটি সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। একটা ঘরের মাটিতে ও আরেকটি দক্ষিণ আফ্রিকায়। দুটি সিরিজেই মিরাজের দল পেয়েছে জয়ের মধুর স্বাদ। এ মাসের মাঝামাঝি ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ওয়ানডে সিরিজে হারিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের তরুণ ক্রিকেটাররা। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে জিম্বাবুয়ে আর ইংল্যান্ডকেও হারিয়েছে বড় ব্যবধানে। সব মিলিয়ে আত্মবিশ্বাসে টইটুম্বুর হয়েই মূল প্রতিযোগিতা শুরু করতে যাচ্ছেন মিরাজরা। এত সাফল্য প্রত্যাশার পারদও চড়িয়ে দিয়েছে অনেকখানি। এ জন্য বাড়তি কোনো চাপ অনুভব করছেন কি না-এমন প্রশ্নে মিরাজের জবাব, ‘আমাদের কাছ থেকে ভালো করার প্রত্যাশা অবশ্যই সবার থাকবে। আমরা এতদিন যেভাবে খেলে এসেছি, যেভাবে প্রস্তুতি নিয়েছি তাতে মনে হয় না খারাপ কিছু হবে।’

 

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচ মিজানুর রহমানও যথেষ্ট আশাবাদী। সাম্প্রতিক সময়ে অনেকবার দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। তাই প্রোটিয়া তরুণদের শক্তি-দুর্বলতা সম্পর্কে দলের ভালো ধারণা আছে বলেই কোচের বিশ্বাস, ‘দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সব মিলিয়ে আমরা ১৬টি ম্যাচ খেলেছি। তাদের সব খেলোয়াড় সম্পর্কেই আমাদের ধারণা আছে। আমার মনে হয় না ছেলেরা এই ম্যাচ নিয়ে চাপের মধ্যে আছে। কারণ আমরা খুবই চেনাজানা এক দলের বিপক্ষে খেলব।’

 

বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের বিশ্বাস- ঘরের মাঠে তাঁদের উত্তরসূরিরা ভালোই খেলবে। মিরাজের দলের ফাইনালে খেলার জোরালো সম্ভাবনা আছে বলে তিনি মনে করেন। খুলনায় এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের সাকিব বলেন, ‘বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ দলটি বেশ ভারসাম্যপূর্ণ। এই দলে বেশ কয়েকজন প্রতিভাবান ক্রিকেটার রয়েছে। প্রত্যেকে নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল তো বটেই, বাংলাদেশের পক্ষে ফাইনালেও খেলা সম্ভব। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, বাংলাদেশ ফাইনালে উঠবেই।’ 

 

তরুণ ক্রিকেটারদের প্রতি সাকিবের পরামর্শ, ‘অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ নিজেকে চেনানোর একটা বড় মঞ্চ। ভালো খেলতে পারলে ভবিষ্যতে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ আসবে। জাতীয় দলে খেলার সম্ভাবনাও উজ্জ্বল হবে।’ নয়টি টেস্ট দল ছাড়াও আইসিসির সাতটি সহযোগী দেশ অংশ নিচ্ছে এবারের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে। ২৭ জানুয়ারি থেকে ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশের পাঁচটি শহরের আটটি ভেন্যুতে ব্যাট-বলের লড়াইয়ে নামবেন আগামী দিনের ক্রিকেট-তারকারা।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com