,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

কাটার ও স্লোয়ার ডেলিভারি দিতে ব্যথা পাচ্ছেন মুস্তাফিজ

লাইক এবং শেয়ার করুন

কিছুদিন ধরেই সমস্যাটা অনুভব করছেন মুস্তাফিজুর রহমান। কাটার দিতে গেলেই ব্যথা লাগছে বাঁ কাঁধে। কখনো কখনো কনুইয়েও। বেশি ব্যথা হয় হাত উল্টো করে মারা স্লোয়ার বলে। ব্যথা খুব বেশি নয়, তবে সার্বক্ষণিক একটা অস্বস্তিকর অনুভূতি থাকেই। কাল জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ইনিংসের শেষ বলটা না করে তাঁর মাঠ ছেড়ে যাওয়ার সেটাই কারণ।

সমস্যা এখনো খুব বেশি নয়। ব্যথাও আছে সহনীয় পর্যায়ে। তবে দিনে দিনে সেটা বাড়ার আশঙ্কা আছে। তা ছাড়া কাটার আর স্লোয়ারই যাঁর আসল অস্ত্র, তাঁকে সেটার ব্যাপারে যত্নশীল হতেই হবে। অন্য দশজন পেসারের মতো সোজা সোজা বল করে গেলে তিনি আর কিসের মুস্তাফিজ! ক্রিকেট-বিশ্বের বাঁহাতি এই বিস্ময়ের হাতের জাদু ধরে রাখতে তাই দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসার বিকল্প দেখছেন না বিসিবির চিকিৎসক-ফিজিওরা।

জিম্বাবুয়ে সিরিজের শেষ দুই ম্যাচের দলে তাঁকে না রাখারও বড় কারণ এটি। কাল রাতে মুঠোফোনে নির্বাচক হাবিবুল বাশারই জানিয়েছেন, ‘কাঁধের ব্যথার কথা চিন্তা করে তাকে শেষ দুই ম্যাচের দলে না রাখার সিদ্ধান্ত আমরা আগেই নিয়ে রেখেছিলাম। মুস্তাফিজ বয়সে এখনো অনেক তরুণ। আমরা তাই ওকে একটু সতর্কভাবে ব্যবহার করতে চাচ্ছি।’ আর এই সতর্কতার অংশ হিসেবে মুস্তাফিজকে দুবাইয়ে অনুষ্ঠেয় পিএসএলে খেলতে না দেওয়ার দাবিটা এখন টিম ম্যানেজমেন্টের মধ্যে বেশ জোরালো হয়ে উঠেছে।

১৪ জনের দলে না থাকলেও সিরিজের বাকি সময় খুলনায় দলের সঙ্গে থাকার কথা মুস্তাফিজের। জাতীয় দলের ফিজিও-ট্রেনারের তত্ত্বাবধানে চলবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা। সূত্র জানিয়েছে, ব্যথা যেহেতু স্লোয়ার দেওয়ার সময়ই বেশি হচ্ছে, বিশেষ ওই ডেলিভারিতে চিকিৎসকেরা মুস্তাফিজের বাঁ হাতের মাংসপেশির সংকোচন-প্রসারণের ভিডিও ফুটেজ বিশ্লেষণ করতে পরামর্শ দিয়েছেন ফিজিও-ট্রেনারদের। সমস্যা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়ার পর শুরু হবে দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা ও পুনর্বাসন-প্রক্রিয়া। কাল রাতে মুঠোফোনে বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিস চৌধুরীকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনিও দিলেন সেই আভাস, ‘ব্যথা এখন খুব বেশি হয় না। তবে এভাবে চলতে থাকলে আস্তে আস্তে তা বাড়বে। সে জন্য এখন থেকেই সতর্ক হতে হবে। সবচেয়ে বড় কথা হলো, যে বলগুলোতে ও সমস্যা বোধ করছে, সেগুলো তার স্টক বল।’

এখনকার ব্যথাটা কমতে আরও দু-তিন দিন সময় লাগবে। এরপরই শুরু হওয়ার কথা মুস্তাফিজের সমস্যা সমাধানের প্রক্রিয়া। তবে আশার কথা, কিছুটা অস্বাভাবিক অ্যাকশনের স্লোয়ার ডেলিভারিতে ব্যথা হলেও স্বাভাবিক বলগুলো করতে তেমন কোনো সমস্যা হচ্ছে না। এশিয়া কাপের আগে যেহেতু এখনো বেশ কিছুদিন সময় আছে, সমস্যা বিশ্লেষণ করে সমাধানের পথ খুঁজে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী দেবাশিস।

একই আশা মাশরাফি বিন মুর্তজারও। কাল ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সেই আশারই রেণু ছড়ালেন অধিনায়ক, ‘এটা ওর পুরোনো সমস্যা। তবে আশা করি তেমন গুরুতর কিছু নয়। ঠিক হয়ে যাবে।’ মাশরাফির চোখে মুস্তাফিজের মূল্যায়ন এতটাই উঁচুতে যে, এই বাঁহাতির তুলনা তিনি বিশ্ব ক্রিকেটেই খুঁজে পান না, ‘মুস্তাফিজের সঙ্গে আমার মনে হয় বিশ্বের কোনো বোলারেরই তুলনা চলে না। আমি সব সময়ই বলি, ও আউট অব দ্য ওয়ার্ল্ড।’

(সূত্র: প্রথম আলো)


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

আরও অন্যান্য সংবাদ