,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

এসআই মাসুদ সাময়িক বরখাস্ত

লাইক এবং শেয়ার করুন

রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাসুদ শিকদারকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের জনসংযোগ বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার। আজ শনিবার দুপুরে প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন তিনি। বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তা গোলাম রাব্বিকে নির্যাতনের অভিযোগের সত্যতা প্রাথমিকভাবে খুঁজে পাওয়ায় তেজগাঁও বিভাগের উপ কমিশনারের ক্ষমতাবলে তাকে বরখাস্ত করা হয়। তিনি বলেন, ‘গোলাম রাব্বিকে নির্যাতনের ঘটনা প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় এসআই মাসুদকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।’
 
এর আগে রাব্বিকে নির্যাতনের ঘটনা খতিয়ে দেখতে মোহাম্মদপুর জোনের সহকারি কমিশনার কাজী ফারুক হোসেনকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়।
শনিবার সকালের দিকে তেজগাঁও বিভাগের উপ কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার এসআই মাসুদকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেন। প্রসঙ্গত, গত ৯ জানুয়ারি শনিবার রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর আসাদগেট এলাকা থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক পদে কর্মরত গোলাম রাব্বিকে আটক করে ইয়াবা ব্যবসায়ী-সেবনকারী বানানোর ভয় দেখিয়ে পাঁচ লাখ টাকা আদায়ের চেষ্টা করেন এসআই মাসুদ শিকদারসহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য। এরপর তাকে গাড়িতে তুলে রাত ৩টা পর্যন্ত মোহাম্মদপুরে বিভিন্ন রাস্তা ঘুরে বেড়ান এবং মারধর করেন। এমনকি তাকে বেড়িবাঁধে নিয়ে ক্রসফায়ারে হত্যার হুমকিও দেন।

ঘটনার পরদিন রোববার সকালে এ বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন রাব্বি। এরপর সারাদেশে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে আলোচিত হয় বিষয়টি। এরপর ১১ জানুয়ারি সোমবার সকালে এসআই মাসুদকে প্রত্যাহার করা হয়। এদিকে গোলাম রাব্বিকে নির্যাতনের ঘটনার ৭দিন পার হলেও থানায় এখনও কোনো মামলা হয়নি। এমনকি ঘটনার পরদিনই রাব্বি মোহাম্মদপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দিলেও সেটি এখনও মামলা হিসেবে রুজু করা হয়নি। মামলা প্রসঙ্গে মোহাম্মদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জামাল উদ্দিন মীর জানান, রাব্বির ঘটনা নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত চলছে। উপরের অনুমতি পেলে রাব্বির দেওয়া অভিযোগপত্রটি মামলা হিসেবে রুজু করা হবে।তুরাগতীরে আইজিপি (ইনসেটে) এসআই মাসুদ

এর পরিপ্রেক্ষিতে আজ (শনিবার) দুপুরে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি) এ কে এম শহিদুল হক সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাকে নির্যাতনে জড়িত পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমার সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, পুলিশের কোনো সদস্য অপরাধ করলে কোনো ধরনের অনুকম্পা দেখানো হবে না।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা ও সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা নির্যাতনের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, ‘ডিএমপি (ঢাকা মহানগর পুলিশ) কমিশনার একটি তদন্ত কমিটি করেছেন। আমি নিজেও এডিশনাল ডিআইজির (পুলিশের উপমহাপরিদর্শক) নেতৃত্বে একটি কমিটি করেছি। … রিপোর্ট আসার পর তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ব্যাপারে কাউকে কোনো প্রকার অনুকম্পা দেখানো হবে না।’

 

সংবাদ ব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত আইজিপি মইনুর রহমান চৌধুরী, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি এস এম মাহফুজুল হক নুরুজ্জামান, গাজীপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদসহ পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ