,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

পৌর নির্বাচনের ৫২ শতাংশ ভোট আওয়ামী লীগের

লাইক এবং শেয়ার করুন

কেন্দ্র দখল, সহিংসতা ও নানা অনিয়মের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা ৫২ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থীরা পেয়েছেন ২৮ শতাংশের কিছু বেশি। শুক্রবার নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের ফলাফল বোর্ডে দেয়া ১৯৯টি পৌরসভার বিবরণী পর্যালোচনা করে এ তথ্য পাওয়া গেছে। তবে শুক্রবার পর্যন্ত দলভিত্তিক প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা বা শতকরা হার জানায়নি নির্বাচন কমিশন।

 

প্রথমবারের মতো দলভিত্তিক স্থানীয় সরকারের এ নির্বাচনের ফলাফল পর্যালোচনায় দেখা গেছে, ১৯৯টি পৌরসভায় মোট ৪২ লাখ ৭৩ হাজারের মতো ভোট পড়েছে। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা ২২ লাখ ৪ হাজার ভোট পেয়েছেন। যা মোট প্রদত্ত ভোটের ৫১ দশমিক ৫৭ শতাংশ। অপরদিকে বিএনপি প্রার্থীরা পেয়েছেন ১২ লাখ ৩ হাজার ২৫৯ ভোট। যা প্রদত্ত ভোটের ২৮ দশমিক ১৫ শতাংশ। তৃতীয় সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। জয়ী হওয়া অন্তত ২১ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী ভোট পেয়েছেন ১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৩২টি। জাতীয় পার্টির ৫২ জন প্রার্থী পেয়েছেন ৫৯ হাজার ৪৬৪ ভোট। এর মধ্যে জয়ী হওয়া নাগেশ্বরী পৌরসভার জাতীয় পার্টির মেয়র ১০ হাজার ২৪৩ ভোট পেয়েছেন।

 

পৌরসভা নির্বাচনের ফলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা বেড়েছে বলে দাবি করে আসছেন দলটির নেতারা। তবে নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে ফল প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। দলটি সরকার ও নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগও দাবি করেছে। কমিশন কর্মকর্তারা জানান, এ পর্যন্ত ২১৪টি পৌরসভার ফল ঘোষণা করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। ১৯টি পৌরসভার এক বা একাধিক কেন্দ্র বন্ধ থাকায় ওই সব পৌরসভার ফল স্থগিত রয়েছে। এছাড়া মাধবদী পৌরসভার সব কেন্দ্রের ভোট বাতিল করা হয়েছে। বেসরকারিভাবে ঘোষিত ২১৪টি পৌরসভার মধ্যে আওয়ামী লীগ পেয়েছে ১৭০টি ও বিএনপি পেয়েছে ১৯টি।

 

বিএনপি ও আওয়ামী লীগ দলীয় প্রতীক নিয়ে সর্বশেষ মুখোমুখি হয়েছিল নবম সংসদ নির্বাচনে। ২০০৮ সালের ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বাক্সে পড়া মোট ভোটের ৪৮ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ এবং বিএনপি ৩২ দশমিক ৫০ শতাংশ পায়। এবার পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রদত্ত ভোটের ৫১ দশমিক ৫৭ শতাংশ ও বিএনপি ২৮ দশমিক ১৫ শতাংশ ভোট পেয়েছে। এ হিসাবে বিএনপির ভোট কমেছে। বিএনপির অনুপস্থিতিতে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৪৭টি সংসদীয় আসনে ৭২ শতাংশ ভোট পেয়েছিল নৌকা।

 

নির্বাচন কমিশন সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম বৃহস্পতিবার ২০৭ পৌরসভার ফল বিশ্লেষণ করে জানান, এবার মেয়র পদে ৭৩ দশমিক ৯২ শতাংশ ভোট পড়েছে। এসব পৌরসভার সোয়া ৬০ লাখ ভোটারের মধ্যে সাড়ে ৪৪ লাখ ভোটার মেয়র পদে ভোট দিয়েছেন। তবে দলভিত্তিক ভোটের হার ও প্রাপ্ত ভোটের সংখ্যা জানাতে পারেননি তিনি। বুধবার দেশের যে ২৩৪ পৌরসভায় ভোট হয়েছে তার মধ্যে অনিয়ম-গোলযোগের ঘটনায় একটি পৌরসভা এবং ১৯ পৌরসভায় ৩৯টি কেন্দ্র স্থগিত করা হয়েছে।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ