,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

মধুপুর বনে নির্বিচারে গাছ কেটে ফেলায় হুমকির মুখে বন্য প্রাণী ও প্রাকৃতিক পরিবেশ

লাইক এবং শেয়ার করুন

মোঃ নাজমুল হাসানঃ মধুপুর বনাঞ্চল দেশের অন্যতম বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য। অথচ সরকারের নজরদারির মধ্যেও ধ্বংস হচ্ছে বনাঞ্চল। প্রভাবশালীদের সহযোগিতায় নির্বিচারে গাছ কেটে নিচ্ছে বনখেকোরা। দিনদিন শাল, সেগুন ও গজারি গাছের সংখ্যা কমতে থাকলেও বনবিভাগের পক্ষ থেকে লাগানো হচ্ছে বিদেশি গাছের চারা। এতে বন্যপ্রাণীর খাদ্য সংকট চরম আকার ধারণ করেছে।

এ কারণে, খাবারের সন্ধানে প্রতিদিনই বনাঞ্চল সংলগ্ন লোকালয়ে চলে আসছে বানর, হরিণসহ বিভিন্ন প্রাণী। স্থানীয়রা জানান, একদল শিকারির দৌরাত্ম্য এবং বিভিন্ন দুর্ঘটনায় মৃত্যু হওয়ায় প্রতিনিয়ত কমছে তাদের সংখ্যা। এদিকে হরিণ প্রজনন কেন্দ্রসহ বনের প্রাণীদের মাঝে সরকারিভাবে নিয়মিত খাবার দেয়া হচ্ছে। তবে তা প্রাণীর তুলনায় একেবারে সামান্য বলে জানালেন বনবিভাগের কর্মকর্তা মো. মাসুদ রানা। তিনি বলেন, ‘খাবারের চাহিদা অনেক বেশি, সে হিসেবে আমাদের সরবরাহ কম।

যে গাছগুলো থেকে তারা খাবার সংগ্রহ করতো তার সংখ্যাও কমে গেছে। যার করণে প্রাকৃতিকভাবেও তারা এখন আর তেমন খাবার পাচ্ছে না।’ অবশ্য, বিদেশি গাছ রোপণ বন্ধ এবং বন্য প্রাণীদের জন্য পর্যাপ্ত খাবারের ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলেন জেলা প্রশাসক মাহবুব হোসেন। প্রাকৃতিক ও সামাজিক মিলিয়ে মোট ২০ হাজার একর মধুপুর বনাঞ্চলে ১৭ প্রজাতির বন্যপ্রাণী রয়েছে। সঠিক পরিসংখ্যান না থাকলেও এ বনে ৭০টি হরিণ, ২ হাজারেরও বেশি বানর ও শতাধিক হনুমান রয়েছে বনবিভাগের তালিকায়।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ