নির্বাচনী প্রচারণার শেষ মুহুর্তে উৎসবমুখর গোলাপগঞ্জ পৌরশহর

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি #  গোলাপগঞ্জ পৌর নির্বাচনের সারাদেশের মত আজ শেষ হচ্ছে নির্বাচনী প্রচারণা। প্রচারণার জন্য মাত্র কয়েকঘন্টা  সময় পাচ্ছেন প্রার্থীরা। তাই শেষ সময়ে ভোটারদের মন জয় করতে গোলাপগঞ্জের প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন।প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ভোটারদের মনজয় করতে।নির্বাচনকে ঘিরে পুরো গোলাপগঞ্জ পৌরসভায় এখন উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। পৌর এলাকার রাজপথ, পাড়া-মহল্লার অলি-গলি সবখানেই শোভা পাচ্ছে প্রার্থীদের পোস্টার ।প্রচারণার শেষমুহুর্তে মেয়র প্রার্থীরা তাদের সমর্থকদের নিয়ে পৌরশহরের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।পৌরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট প্রদক্ষিন করে সমবেত হয়ে করছেন পথসভা।সোমবার বিকাল ৩ টায় পৌরশহরের নুরম্যনশনের সামনে সতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সিরাজুল জব্বার চৌধুরী মোবাইল প্রতিকের সমর্থনে  হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে পথসভা করেছেন।
 
বিকাল ৪ টায় চৌমুহনীর  মুক্তিযোদ্ধা কার্যালয়ের সামনে জগ প্রতিকের সমর্থনে পথসভা করেছেন সতন্ত্র মেয়র প্রার্থী আমিনুল ইসলাম রাবেল ।বিকাল ৪ টা ৩০ মিনিটে মর্তুজা মার্কেটের সামনে দেয়াল ঘড়ির সমর্থনে পথসভা করেছেন আমিনুল ইসলাম আমিন। সন্ধ্যা ৬ টায় সোমা এক্সরের নিকটস্থ নিজ অস্থায়ী নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে নারিকেল গাছের সমর্থনে পথসভা করেছেন সতন্ত্র প্রার্থী আমিনুর রহমান লিপন।সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে মাইক্রোবাস ষ্টেন্ডের সামনে নৌকা প্রতিকের পথসভা করেছেন জাকারিয়া আহমদ পাপলু।এসব পথসভায় মেয়র প্রার্থীরা কথার ফুলঝুরি ফুটিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করেছেন।
 
কনকনে শীত উপেক্ষা করে প্রার্থীরা দিন-রাত ঘুরছেন ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে। চাইছেন ভোট, আর দিচ্ছেন উন্নয়নের নানা প্রতিশ্রুতি।সব প্রার্থীই মাদকমুক্ত, দুর্নীতিমুক্ত পৌরসভা তৈরী, জলবদ্ধতা নিরসন,  বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থাসহ রাস্তা-ঘাট উন্নয়নের আশ্বাস দিচ্ছেন। দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত বিভিন্ন প্রার্থীর বিশেষণ উল্লেখ করে মাইকে চলছে ভোট প্রার্থনা।বিভিন্ন এলাকা পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে,শেষ পর্যন্ত এগিয়ে রয়েছেন মোবাইল প্রতিকের সতন্ত্র প্রার্থী সিরাজুল জব্বার চৌধুরী ও ধানের শীষ প্রতিকে বিএনপি মনোনিত প্রার্থী গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন।মূল লড়াই এই দুই মেয়র প্রার্থীর মধ্যে হবে বলে ভোটাররা ব্যক্ত করেছেন।
 
এবার গোলাপগঞ্জ পৌর নির্বাচনে  মেয়র পদে ৭ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৩ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১০ প্রার্থী ভোর থেকে নির্বাচনী প্রচারণার সময় শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত তাদের নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাবেন। এ পোরসভায় ৯টি ওয়ার্ডে ভোটার রয়েছেন ১৯ হাজার ৭৩৫ জন।মোট ভোট কেন্দ্র ৫১ টি।ইতি মধ্যে আইন শৃংখলা বাহিনী বিজিবি পৌরশহরে বিভিন্ন এলাকায় টহল শুরু করেছেন।
ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
২৬ বার পঠিত
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com