নন্দীগ্রামে স্কুলছাত্রকে হত্যা : অটোভ্যান ছিনতাই

এই সংবাদ ২৪ বার পঠিত

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) সংবাদদাতা # বগুড়ার নন্দীগ্রামে রাজিকুল(১২) নামের চতুর্থ শ্রেনীর এক স্কুলছাত্রকে হত্যা করে অটোভ্যান ছিনতাই করেছে দূর্বৃত্তরা। গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় পৌর শহর পাশ্ববর্তী উপজেলার সিধইল-শোলাগাড়ীর খাড়ি থেকে স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, পৌর এলাকার ফোকপাল গ্রামের রেজাউল করিম মদনের ছেলে বালিয়াগাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র রাজিকুল ইসলাম লেখাপড়ার পাশাপাশি তার পিতার অটোভ্যানে মাঝেমধ্যে ভাড়ায় চালিয়ে সংসারের সহযোগীতা করতো।

 

একপর্যায়ে গত শুক্রবার বিকাল ৩টায় শিশু রাজিকুল বাড়ি থেকে তার পিতার অটোভ্যানে করে হোটেলের জ্বালানী (স্থানীয় নাম ঘুটা) পৌঁছে দিতে নন্দীগ্রাম বাসষ্ট্যান্ডে আসে। এরপর থেকে সে নিখোজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও কোন সন্ধান না পেয়ে রাজিকুলের পরিবার দুশ্চিন্তায় পড়ে। শনিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার সিধইল গ্রামের শোলাগাড়ী খাড়িতে স্কুলছাত্রের লাশ পড়ে থাকতে দেখে ওই মাঠের গরুর রাখালরা। লাশ দেখতে আশপাশের এলাকার হাজার হাজার নারী পুরুষের ঢল নামে। শিশু রাজিকুলের মাথায় আঘাতের চিহ্ন ও হাতে জখম রয়েছে। লাশের পাশে বাঁশের গোড়ালী ও একটি ইট পড়ে আছে। পুলিশ ধারনা করছে, শুক্রবার দিবাগত রাতের কোনো এক প্রহরে শিশু রাজিকুলের মাথার পেছনে আঘাত করে হত্যা করেছে।Nandigram.Razikulখবর পেয়ে বগুড়ার সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার গাজীউর রহমান ও থানার ওসি হাসান শামীম ইকবাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এবং ঘটনাস্থল থেকে শিশু রাজিকুলের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তবে ছিনতাইকৃত অটোভ্যানের কোনো সন্ধান মেলেনি। স্থানীয়রা বলছেন, অমানবিকভাবে শিশু রাজিকুলকে হত্যা করা হয়েছে। কেন? এই নি:শ্বংস হত্যাকান্ড। নিষ্পাপ স্কুলছাত্রকে কেন হত্যা করেছে’ এমন প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে সবার মাঝে। অটোভ্যান ছিনতাইকারীদের চিনতে পেরেছে। যেকারনে শিশু রাজিকুলকে হত্যা করা হতে পারে বলে অনেকেই এমন ধারনা করছেন। অটোভ্যান ছিনতাইকারী চিনতে পারা’ নাকি অন্য কিছু। এপ্রসঙ্গে থানার ওসি হাসান শামীম ইকবাল জানান, নিহত রাজিকুলের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে’ অটোভ্যান ছিনতাইয়ের জন্যই শিশুর মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করে তাকে হত্যা করা হয়েছে। লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার

Bogra Offce

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com