নওয়াজের আমন্ত্রণেই পাকিস্তান সফর : নরেন্দ্র মোদি

এই সংবাদ ২৩ বার পঠিত

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের আমন্ত্রণেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আকস্মিকভাবে দেশটি সফর করছেন। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আজ (শনিবার) এ খবর দিয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানের নতুন সংসদ ভবনে ভাষণ দেয়ার পর মোদি তার গাড়িতে ওঠেন। এ সময় জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোর জন্য পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজকে টেলিফোন করেন তিনি। রাজধানী ইসলামাবাদে অবস্থান করছেন না বরং নাতনির বিয়েতে যোগ দেয়ার জন্য লাহোর গেছেন বলে তাকে জানান নওয়াজ। এরপর তাকে আমন্ত্রণ জানান নওয়াজ। তিনি বলেন, আপনার বিমান পাকিস্তানের ওপর দিয়েই যাবে, তা হলে আমার দেশ ঘুরে গেলে কেমন হয়?

 

মোদি দেরি না করেই এ আমন্ত্রণ গ্রহণ করেন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে চা চক্রে মিলিত হবেন বলে তক্ষুনি জানিয়ে দেন। মোদির এ সিদ্ধান্তে ভারতীয় প্রতিনিধিদল এবং প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা হতচকিত হয়ে যায়। এদিকে, ইসলামাবাদে ভারতের হাই কমিশনার টিসিএ রাঘবন বড়দিনের ছুটি কাটাচ্ছিলেন। বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতো তিনি জানতে পারেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে স্বাগত জানানোর জন্য তাকে তিন ঘণ্টার মধ্যে লাহোর পৌঁছাতে হবে। লাহোর বিমানবন্দরে তাকে হাসতে হাসতে নওয়াজ প্রশ্ন করেছিলেন, রাঘবন সাহেব, আপনাকে এখানে পৌঁছাতে কতগুলো ট্রাফিক লাইট টপকাতে হয়েছে?

 

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো বলছে, আকস্মিকভাবে পাকিস্তান সফরে সম্মত হওয়ার পেছনে মোদির দুই ধরণের চিন্তা কাজ করেছে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রথমত, মোদি ২০১৪ সালের ২৬ মে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন নওয়াজকে। অভ্যন্তরীণ নানা সমস্যা সত্ত্বেও আস্থা প্রদর্শনের জন্য এ আমন্ত্রণ গ্রহণ করে নয়াদিল্লি গিয়েছিলেন নওয়াজ। মোদিও গতকাল একই রকম আস্থা প্রদর্শনের সিদ্ধান্ত নেন।

 

দ্বিতীয়ত পাকিস্তান সফর নিয়ে দাপ্তরিক নানা ঝামেলা এবং দীর্ঘসূত্রতা এড়াতে চেয়েছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী। দিল্লি থেকে যদি পাক প্রধানমন্ত্রীর নাতনির বিয়েতে যোগ দেয়ার পরিকল্পনা করতেন তবে অনেক ঝামেলার মধ্যদিয়ে যেতে হতো। নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির অনুমোদন লাগত। এছাড়া, ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে যে ঝড় উঠত তাও সামলাতে হতো। ধারণা করা হচ্ছে- এসব ঝুট-ঝামেলা এড়াতে চেয়েছেন মোদি।

 

প্রতিবেশি দেশগুলো সফর নিয়ে পূর্ববর্তী প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ার নেতাদের একে অন্যের রাজধানী সফরে যাওয়ার বিষয়টি খুবই স্বাভাবিক ঘটনা হওয়া উচিত। এ চিন্তাধারাই প্রতিধ্বনি দেখতে পাওয়া গেল মোদির কাজে। লাহোর সফরের সময় মোদির জন্য ন্যূনতম নিরাপত্তা এবং প্রটোকল ছিল বলে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে। নওয়াজের বাসভবনে মোদি তিন মেয়েকে আশীর্বাদ করেন এবং শুভেচ্ছা জানান।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com