লক্ষ্মীপুরে গরম মসলার বাজার গরম

১৭ বার পঠিত

কিশোর কুমার দত্ত,লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: আর একদির পর ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে লক্ষ্মীপুরের গরম মসলার বাজারে গরমের ঝাজ লেগেছে। বাজারে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ ভালো থাকায় কয়েকটি মসলার দাম স্থিতিশীল থাকলেও আদা, রসুনের দাম প্রায় বেড়েছে ৩৫ শতাংশ।

বাজারে প্রতিকেজি দেশি আদা ১৫০ টাকায়, ইন্দোনেশিয়ার আদা ১২০ টাকায়, চায়না আদা ৮০ টাকায় এবং দেশি রসুন ১৫০ টাকায় ও আমদানি করা রসুন ১৭০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা যায়। আদার দাম কেজিতে ২০ টাকা বেড়েছে বলে জানান লক্ষ্মীপুরের কয়েকজন বিক্রেতা।

বর্তমানে বিভিন্ন মানের ও দেশের প্রতি কেজি আদা বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১৩০ টাকায়। যা এক মাস আগে বিক্রি হয়েছিল ৫০ থেকে ৮০ টাকায়। কিন্তু জিরাসহ কয়েক পদের মসলার দাম নিম্নমূখী রয়েছে। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ এলাচি, দারুচিনিসহ কয়েকটি পণ্যের দাম কেজি প্রতি ২০-৫০ টাকা বেড়েছে।

রায়পুরের মুদি দোকানদার জসিম বলেন, আসন্ন ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে গরম মসলার চাহিদা বেড়েছে। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে জিরা ছাড়া কয়েক পদের মসলার দাম কেজিতে ২০-৫০ টাকা বেড়েছে। তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় বাজার অনেকটা স্থিতিশীল রয়েছে।

রামগঞ্জের মসলা বিক্রেতা বিশ্বজিৎ চৌধুরী জানান, ভারত থেকে আমদানি করা জিরা মানভেদে কেজিপ্রতি ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। বাজারে সরবরাহ বেশি থাকায় ১৫ দিনের ব্যবধানে কেজিতে ১০-১৫ টাকা কমেছে। সিরিয়া থেকে আমদানিকৃত জিরাও মানভেদে বিক্রি হচ্ছে ৩৩০-৩৩৫ টাকা দরে। টার্কি থেকে আমদানি করা জিরাও একই দামে বিক্রি হচ্ছে।

জেলা শহর লক্ষ্মীপুর, রামগঞ্জ, রায়পুর এবং রামগতির ৯ জন মসলা বিক্রেতার সাথে কথা বলে জানা যায়, বাজারে কয়েক পদের এলাচি পাওয়া যায়। ব্যবসায়ীরা জানান, এলাচিও মানভেদে ৮০০ টাকা থেকে শুরু করে ১২০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে সব ধরনের এলাচির দাম কেজিতে ৫০-৬০ টাকা বেড়েছে। চায়না থেকে আমদানিকৃত দারুচিনি ২১৫-২১৮ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ভিয়েতনামের দারুচিনি ২২০ টাকা থেকে ২৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

দারুচিনির দাম স্থিতিশীল রয়েছে। ইন্দোনেশিয়া, ব্রাজিল, মাদাগাসকার থেকে আমদানিকৃত লবঙ্গ ৮০০ টাকা থেকে ৯৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এক সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে ১০-১৫ টাকা বেড়েছে।

ভিয়েতনাম থেকে আমদানিকৃত গোলমরিচ ৮২৫ টাকা থেকে ৮৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রকারভেদে ১০-২০ টাকা বেড়েছে। শ্রীলংকা, ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা জয়ত্রী মানভেদে ১২২০-১২৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। শ্রীলংকার জায়ফল ৪০০ থেকে ৪৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

 

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সুব্রত দেব নাথ

সিনিয়র নিউজরুম এডিটর

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com