আজ বুধবার, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ২৮শে জিলহজ্জ, ১৪৩৮ হিজরী, শরৎকাল, সময়ঃ রাত ১০:৩৪ মিনিট | Bangla Font Converter | লাইভ ক্রিকেট

‘জঙ্গি তৎপরতা ঠেকাতে সীমান্তে কঠোর নজরদারি রয়েছে’

‘যে কোনো ধরনের জঙ্গি তৎপরতা ঠেকাতে সীমান্তে কঠোর নজরদারি ও প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে’ বলে জানিয়েছেন বিজিবির মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ। রবিবার দায়িত্ব নেয়ার ৩ বছর পূর্তি উপলক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপচারিতায় সাম্প্রতিক পরিস্থিতি ও নিজের বিভিন্ন অর্জন নিয়ে কথা বলেন বিজিবি মহাপরিচালক। ২০১২ সালের ৫ ডিসেম্বর বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষা বাহিনীর দায়িত্ব নেন সেনাবাহিনীর এ কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, ‘রাতের আঁধারে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম না করলে সীমান্তে হত্যা কমে আসবে। বর্তমানে সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা সম্ভব হয়নি এটা সত্য। তবে কিছুটা কমে এসেছে।’ আজিজ আহমেদ বলেন, ‘৩ বছরে বিজিবির জন্য ২৭৬টি স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছে। রণকৌশল নির্ধারণে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সমন্বয় রেখে প্রশিক্ষণে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এবারই প্রথম বিজিবিতে একশ নারী সদস্য যুক্ত হচ্ছে। জানুয়ারিতে তাদের প্রশিক্ষণ শুরু হবে।’

মাদক পাচারও অনেকটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে দাবি করে তিনি বলেন, ‘ফেনসিডিল অনুপ্রবেশ কমে এসেছে। এরপরও যা আসছে তা আমাদের উদ্বেগের কারণ। এক্ষেত্রে চাহিদার জায়গা নিয়ন্ত্রণ করলে সাপ্লাই কমে যাবে।’ কেবল সীমান্ত এলাকা দিয়ে নয়, বিমান ও নৌপথেও অনেক সময় নিষিদ্ধ মাদক দেশে আসছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। এসব ঘটনায় বিজিবির কেউ জড়িত থাকছে কি না জানতে চাইলে মহা পরিচালক বলেন, ‘আমাদেরও দুর্বলতা আছে। আমি কখনও বলব না, আমাদের শতভাগ লোক ধোয়া তুলসিপাতা। তবে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।’ চোরাচালানে সম্পৃক্ততা ও ‘নারীঘটিত’ কারণে গত ৩ বছরে প্রায় ১শ’ জনকে বিজিবি থেকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com